বাজারজাতের উদ্দেশ্যে আড়তে রাখা প্রায় ২০ মন অপরিপক্ক আম ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমান আদালত

image

বগুড়ায় প্রায় কুড়ি মন অপরিপক্ক আম ধ্বংস করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জেলা প্রশাসনের নির্বহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুর রহমান ৯ জুন রোববার বিকেল ৫ টায় শহরের স্টেশন রোড এলাকায় অভিযান চালান। অভিযানকালে অপরিপক্ক আম মজুদের দায়ে দু’টি প্রতিষ্ঠানকে ১৮ হাজার টাকা জরিমানা করে আদালত। আমগুলো বাজারে বিক্রির জন্য আড়তে রাখা হয়েছিল।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের সঙ্গে থাকা বগুড়া পৌরসভার সেনেটারি ইন্সপেক্টর শাহ্ আলী জানান, শহরের বিভিন্ন ফলের আড়তে অপরিপক্ক আম মজুদ করে পাইকারি ও খুচরা বিক্রি হচ্ছে এমন অভিযোগে রোববার ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযানে নামেন। আদালত শহরের স্টেশন রোডে মেসার্স বিএম এন্টারপ্রাইজ নামে একটি দোকানে অভিযান চালিয়ে ৭৬০ কেজি বা প্রায় ১৯ মণ অপরিপক্ক আম পাওয়া যায়। পরে সেগুলো জব্দ করে রোলার মেশিন দিয়ে ধ্বংস করা হয়। অপরিপক্ক আম মজুদের দায়ে ওই প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার হামিদুল ইসলামের ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এরপর আদালত একই এলাকার মেসার্স জয় ফল ভাণ্ডারে গিয়ে ৬০ কেজি বা দেড় মণ অপরিপক্ক আম দেখতে পান এবং সেগুলোও জব্দ করে ধবংস করেন। অপরিপক্ক ওই পরিমাণ আম মজুদ রাখার দায়ে আদালত প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার মেহেদী হাসানের ৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন। বগুড়া পৌরসভার সেনেটারি ইন্সপেক্টর শাহ্ আলী জানান, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৪৫ ধারায় আদালত অপরিপক্ক আমগুলো জব্দের পর ধ্বংস এবং দায়ী দু’টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছেন।