মৃত্যুদণ্ডাদেশের ১১ বছর পর আসামি গ্রেফতার

image

গাজীপুরের আলোচিত অ্যাডভোকেট সোহেল হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি সায়মন শাহরিয়ার ওরফে সজলকে (৩০) প্রায় ১১ বছর পর গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন সায়দাবাদ জনপদ মোড় এলাকা থেকে র‌্যাব-১ এর একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার সজল সায়দাবাদ জনপদের মোড় এলাকার মো. আবদুর রউফের ছেলে। পরিবারের সঙ্গে ওই এলাকার একটি বাসায় থাকতেন তিনি। র‌্যাব ১-এর স্পেশালাইজ কোম্পানি পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, সজল সায়েদাবাদ জনপদের মোড় এলাকায় অবস্থান করছে এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের মার্চ মাসে অ্যাডভোকেট ফিরোজ্জামান ওরফে সোহেলকে (২৮) নৃশংসভাবে খুন করে সায়মন শাহরিয়ার ওরফে সজল ও তার সহযোগীরা। গাজীপুরের জয়দেবপুর থানাধীন দক্ষিণ ছায়াবিথী এলাকায় সোহেলের বাড়িতে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। এ ঘটনায় একই বছরের ১১ মার্চ সজলকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের বিরুদ্ধে জয়দেবপুর থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। মামলার বিচার শেষে আদালত আসামি সজলকে পেনাল কোডের ৩০২ ধারায় ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দেন। একইসঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। কিন্তু ফাঁসির রায় শোনার পর থেকে গত ১১ বছর ধরে সজল পলাতক ছিলেন। সজল ছাড়া বাকি আসামিরা বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে।