শুদ্ধি অভিযান চাঁদাবাজ টেন্ডারবাজ অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে : কাদের

image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, চলমান শুদ্ধি অভিযান অনুপ্রবেশকারী, স্বাধীনতাবিরোধী, অপকর্মকারী, চাঁদাবাজ ও টেন্ডারবাজদের বিরুদ্ধে। এ অভিযান কোনো গোষ্ঠী বা ব্যক্তির বিরুদ্ধে নয়। দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে, দুর্বৃত্তায়নের চক্র ভেঙে দিতেই এ অভিযান। যারা ‘মাইনোরিটি (সংখ্যালঘু)’ সম্পদ দখল করতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযান। শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) পুরান ঢাকার ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে এক বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে সেতুমন্ত্রী পূজা মন্ডপ ঘুরে দেখেন এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, উপ-দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া, ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. সেলিম প্রমুখ।

সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারত সফরে যাওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করে বলেছেন, তৃণমূল পর্যায়ের কাউন্সিলে ও সম্মেলনে যাতে কোনোভাবেই বিতর্কিতরা জায়গা না পায়। তার নির্দেশনা অনুযায়ী সে বিষয়ে আমরা সতর্ক আছি। ভারত-বাংলাদেশ সফরের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সাথে ভারতের সম্পর্ক অনেক ভালো। নরেন্দ্র মোদি সরকারের সাহসিকতার কারণে ছিটমহলের মতো সীমান্ত সমস্যার সুরাহা করেছেন। সমুদ্র সীমার বিষয়ে জাতিসংঘের রায়ের বিরুদ্ধে তারা আপিল না করে তারা সুসম্পর্ক বজায় রেখেছে।

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশে হিন্দু-মুসলমান সবাই এক। আপনাদের ভোটের মর্যাদা মুসলমানের চেয়ে কম নয়। আপনারা মাথা উঁচু করে দাঁড়াবেন। মেরুদন্ড সোজা করে দাঁড়াবেন। শেখ হাসিনা যতদিন ক্ষমতায় আছেন, আপনাদের কোনো ভয় নেই।