বিএসইসির নতুন চেয়ারম্যানকে ডিবিএ সিএসইর অভিনন্দন

image

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামকে অভিনন্দন জানিয়েছে বাংলাদেশ পুঁজিবাজারের শীর্ষ সংগঠন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএ)।

সোমবার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ডিবিএ’র প্রেসিডেন্ট শরীফ আনোয়ার হোসেন ডিবিএ’র পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে নবনিযুক্ত চেয়ারম্যানকে এই অভিনন্দন জানান।

শরীফ আনোয়ার হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম পেশাগত ক্ষেত্রে অত্যন্ত অভিজ্ঞ ও সফল একজন ব্যক্তি। দেশ-বিদেশে তার বিভিন্ন গঠনমূলক কার্যক্রম ও অবদানের জন্য তিনি বেশ প্রশংসা ও সুনাম অর্জন করেছেন। পুঁজিবাজারে তার আগমন, নেতৃত্ব ও অভিভাবকত্ব বিনিয়োগকারীসহ বাজার সংশ্লিষ্ট সকলকে আস্থা যোগাবে।

বিশেষ করে কভিড-১৯ এর ফলে সৃষ্ট যে কোন প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে পুঁজিবাজার রক্ষার পাশাপাশি এর উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে তিনি সময়োপযোগী, বাস্তবসম্মত ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করবেন বলে আমি আশা করি। আমি দৃঢভাবে বিশ্বাস করি, তার বলিষ্ঠ নের্তৃত্বে বাংলাশে পুঁজিবাজার সকল সংকট পেরিয়ে অচিরেই একটি শক্তিশালী, মজবুত ও টেকসই পুঁজিবাজারে উন্নীত হবে।

বাংলাদেশ পুঁজিবাজারের সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে ডিবিএ নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান এবং তার কমিশনকে সকল প্রকার সহযোগীতা করে যাবে বলে ডিবিএ’র প্রেসিডেন্ট আশ্বাস প্রদান করেন।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জেরে (সিএসই)-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক গতকাল শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামকে ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন । এ সময় পুঁজিবাজারের উন্নয়ন ও পুঁজিবাজারের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে তাঁরা আলোচনা করেন এবং বাজার উন্নয়ন ও বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফেরাতে একযোগে কাজ করার ব্যাপারে একমত পোষণ করে।

এ সময় সিএসই’র জেনারেল ম্যানেজার ও ঢাকাস্থ কার্যালয়ের প্রধান মোঃ গোলাম ফারুক এবং অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৭ মে অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামকে সরকার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ প্রদান করে। এদিনই মন্ত্রণালয়ে যোগদানপত্রে স্বাক্ষর করে বিএসইসির কর্মস্থলে যোগ দেন। গত ১৪ মে বিএসইসি’র চেয়ারম্যান প্রফেসর এম খায়রুল হোসেনের মেয়াদ শেষ হয়। আর তার স্থলাভিষিক্ত হলেন প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত।

তিনি ২০১৬ সাল থেকে সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার নেতৃত্বে গত চার বছরে প্রায় এক হাজার ২৫০ কোটি টাকা লাভ করেছে সাধারণ বীমা কর্পোরেশন। ২০১৬ সালে ২৮৫ দশমিক ৪৩ কোটি টাকা লাভ করে প্রতিষ্ঠানটি। ওই বছর বীমা দাবি পরিশোধ করা হয় ২০০ দশমিক ০৬ কোটি টাকা। এরপর থেকে এই ধারা বাড়তে থাকে। ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠানটি লাভ করে ৩০১ দশমিক ৭৩ কোটি টাকা। ওই বছর বীমা দাবি পরিশোধ করা হয় ৩৫০ দশমিক ১১ কোটি টাকা। ২০১৮ সালে লাভ করে ৩২৫ দশমিক ০২ কোটি টাকা। ওই বছর বীমা দাবি পরিশোধ করা হয় ৩৭৬ দশমিক ৩৬ কোটি টাকা। আর সর্বশেষ ২০১৯ সালে অনিরীক্ষিত হিসাব অনুযায়ী লাভ করে ৩২৮ দশমিক ৯০ কোটি টাকা এবং বীমা দাবি পরিশোধ করে ৪৬২ দশমিক ২৪।

তিনি ১৯৬৮ সালে ঢাকার ধামরাইতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা রফিকুল ইসলাম খান অবসর গ্রহণের পূর্ব পর্যন্ত ন্যাশনাল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন। মা দেশের প্রখ্যত সংগীতশিল্পী হাসিনা মমতাজ। তার স্ত্রী শেনিন রুবাইয়াত ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক এবং বাংলাদেশ টেকিভিশনের সংবাদ পাঠিকা। দুই পুত্র সন্তানের বাবা শিবলী রুবাইয়াত।