উৎসবমুখর ও শান্তিপূর্ণভাবে ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে : ঢাবি উপাচার্য

image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেছেন, দুই-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া খুবই উৎসবমুখর ও শান্তিপূর্ণভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১১ মার্চ সোমবার ভোট গ্রহণ শেষে তিনি এসব কথা বলেন। উপাচার্য আরও বলেন, দুই-একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া খুবই উৎসবমুখর পরিবেশে এবং গণতন্ত্রের মূল্যবোধের বিশ্বাসে ভোট হয়েছে। ভোটগ্রহণ শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমি শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানাই। তারা সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে। তারা গণতন্ত্রের রীতিনীতি অনুসরণ করেই ভোট দিয়েছে। আমি অনেক কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। সেখানে দেখেছি শিক্ষার্থীরা লাইন দিয়ে ভোট দিয়েছে।

বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলের অনিয়মের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা কালক্ষেপণ না করে, কোনও শৈথিল্য না দেখিয়ে প্রভোস্টকে সরিয়ে দিয়েছি। নতুন প্রভোস্ট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করে দিয়েছি। কমিটি মূলত খতিয়ে দেখবে কারা এর সঙ্গে জড়িত। এই নীতিবহির্ভূত কাজের সঙ্গে যারা জড়িত, যেটা কোনোভাবেই বরদাশত করা যায় না। এর বিরুদ্ধে আমরা কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করবো, যাতে ভবিষ্যতে কেউ নীতিবিরোধী এ ধরনের কাজ ও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত না হয়। সেটা আমরা দেখবো। রিপোর্ট পাওয়ার পর আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

অধ্যাপক আখতারুজ্জামান আরও বলেন, আমাদের ডাকসুর রীতিনীতি, গঠনতন্ত্র রয়েছে। তা মেনেই সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা দেখেছি, আমাদের শিক্ষার্থীদের যে সুশৃঙ্খলা এবং তাদের গণতন্ত্রের যে মূল্যবোধ রয়েছে তা দেখে আমি খুশি। তাদের এই মূল্যবোধ আমাদের অনুপ্রেরণা দেয়। সামনের দিনগুলোতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে। যে বা যারা অনিয়ম ও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠিন থেকে কঠিনতর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।