এলইউর সামার সেমিস্টারের অনলাইন পাঠদান উদ্বোধন

image

লিডিং ইউনিভার্সিটি সামার ২০২০ সেমিস্টারের পাঠদান ১ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে। ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ পাঠদানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. সৈয়দ রাগীব আলী।

অনলাইন প্ল্যাটফর্মে শিক্ষা কার্যক্রম নিয়মিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য তিনি উপাচার্য, শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বিশ্বমানের অনলাইন শিক্ষা প্রদান করতে সব ধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে লিডিং ইউনিভার্সিটি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (দায়িত্বপ্রাপ্ত) শ্রীযুক্ত বনমালী ভৌমিক।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের ভাইস চেয়ারম্যান এবং ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যা সিফিকের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আর কবির। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, এই নতুন স্বাভাবিক পরিস্থিতির সঙ্গে আমাদের খাপ খাওয়ায়ে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, ট্রাস্টি বোর্ডের দিকনির্দেশনা এবং উপাচার্যের নেতৃত্বে বাংলাদেশে প্রথম থেকে যেকটি বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে ক্লাস পরিচালনা করছে তাদের মধ্যে লিডিং ইউনিভার্সিটি অন্যপতম। সর্বদা শিক্ষার গুণগতমান বজায় রাখার দক্ষতা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, অনলাইন প্লাটফর্মে ক্লাসে অংশগ্রহণ শিক্ষার্থীদের ইনফরমেশন এবং কমিউনিকেশন দক্ষতা বৃদ্ধি করে যা পরবর্তীতে চাকরির ইন্টার্ভিউ এবং কর্মক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা রাখবে। নিজেদের মূল্যববান সময় যাতে জীবন থেকে ঝড়ে না পরে তারজন্যা অনলাইন শিক্ষাকার্যক্রমে অংশগ্রহণ ছাড়া কোন বিকল্প নাই। তানি বলেন, শিক্ষার্থীদেরকে পজেটিভ হয়ে শিক্ষায় অস্থিরতা সৃষ্টি করতে হবে। বিভিন্ন প্রশ্নত্তোরের মাধ্যমে জেনে নিতে হবে এ শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা কি। তিনি শিক্ষার্থীদের আগামী সুন্দর ভবিষ্যত কামনা করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. এএনএম মেশকাত উদ্দিন বলেন, অনলাইন শিক্ষাকার্যক্রমে কিছু অসূবিধা থাকলেও গত সেমিস্টারর অভিজ্ঞতা থেকে আমরা অনেক উন্নতি সাধন করেছি যা এ সেমিস্টারে পাঠদান আরও বেশি কার্যকর হবে। বৈশ্বিক এ পরিস্থিতির উন্নতি কবে হবে তার সঠিক হিসেব যেহেতু নেই তাই আমাদের মূল অবকাঠামোতে পরিবর্তন আনতে হবে। এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতার দেয়া নাম লিডিং ইউনিভার্সিটি যতাযত স্বার্থকতা রেখে আজ স্বগৌরবে এগিয়ে চলছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়মিত একাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে যা প্রতিষ্ঠানের কোয়ালিটি ধরে রাখছে। তিনি পাঠদান আরও ইন্টারেক্টিভ করতে এবং শিক্ষার্থীরা যাতে কোন অভিযোগ করতে না পারে সেভাবে বুঝিয়ে শিক্ষকদের ক্লাস নেয়ার পরামর্শও প্রদান করেন।

উপাচার্য শীযুক্ত বনমালী ভৌমিক বলেন, অনলাইন শিক্ষা ফলপ্রসু করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা গত সেমিস্টারে পাঠদান এবং অত্যন্ত সফলতার সাথে পরীক্ষা নিতে পেরেছি এবং এবারও সফল হবো। বিশ্বব্যাপী বিপর্যয় এর সময়ও আমাদের শিক্ষা কার্যক্রম অনলাইনে চালু রাখতে সক্ষম হয়েছি। আমরা শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রদানে বদ্ধ পরিকর। আমাদের রয়েছে আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষকবৃন্দ যারা শিক্ষার্থীদের অত্যন্ত যত্নের সাথে পাঠ দান করে থাকেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য সৈয়দ আব্দুল হাই, সচিব মেজর (অব.) শায়েখুল হক চৌধুরী, আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এম রকিব উদ্দিন, কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নাসির উদ্দিন আহমেদ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মোস্তাক আহমাদ দীন, রেজিস্ট্রার মেজর (অব) মো শাহ আলম, পিএসসি, প্রক্টর মো. রাশেদুল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ভার্চুয়াল এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি আয়োজন করেন আর্কিটেকচার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান স্থপতি রাজন দাশ এবং সিএসই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. আরিফ আহমেদ।