রাবির প্রথম প্রশাসনিক ভবন হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার দাবি

image

প্রথম প্রশাসনিক ভবন বড় কুঠি সরকারের সংস্কৃত মন্ত্রণালয়ের কাছে মালিকানা হস্তান্তর বিষয়ে পাহ হওয়া সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা। বুধবার দুপুরে (১৭ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে তারা এ দাবি জানান।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বড় কুঠি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম প্রশাসনিক ভবন। এর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস-ঐতিহ্য জড়িত। ফলে এটি রক্ষা করার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের। সম্প্রতি এটিকে সংস্কৃত মন্ত্রণালয়ের অধীন দিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সিন্ডিকেট সদস্যের অনেকের বিরোধিতা সত্ত্বেও এটিকে সংস্কৃত মন্ত্রণালয়ের অধীন দিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত কেন নেয়া হলো, তা আমাদের বোধগম্য হচ্ছে না। এটি রক্ষায় যদি সরকারি কোন মন্ত্রণালয়, প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতা লাগে, সেটি অবশ্যই নেয়া যাবে। কিন্তু মালিকানা হস্তান্তর করা যাবে না। তারা অবিলম্বে এই অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত বাতিলের আহ্বান জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৯১তম সিন্ডিকেটে বড় কুঠি সরকারের সংস্কৃত মন্ত্রণালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারির পর সংস্কৃত মন্ত্রণালয়ের কাছে মালিকানা হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে প্রথম থেকেই প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন শিক্ষকরা। এ সিদ্ধান্ত বাতিল করা না হলে কর্মসূচি ঘোষণা করবে বলে জানিয়েছিল রাবি শিক্ষক সমিতি।