সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তির দাবি আদায়ে শিক্ষার্থীদের আল্টিমেটাম

image

করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের একমাত্র অনাবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বাসাভাড়াসহ বিভিন্ন শিক্ষা সংকটে ভুগছে। সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তিসহ অন্যান্য শিক্ষা সংকট নিরসনের দাবিতে চলমান মেসভাড়া আন্দোলনের সাথে একাত্নতা প্রকাশ করেছে ১৩১ জন সিআর ( শ্রেণী প্রতিনিধি) বিবৃতি দিয়েছে। দাবি আদায়ে তারা জবি প্রশাসনকে ৭ দিনের আল্টমেটাম দিয়েছে।

বিবৃতিতে জানা যায়, চলমান বাসা ভাড়া ও আর্থিক সমস্যা নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগ ও সকল ব্যাচের সি.আরদের সম্মিলিত আলোচনা সভাতে তারা ১৯ নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্তকে স্বাগত ও সমর্থন জানিয়ে এই দাবির পক্ষে আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করে।

বিবৃতিতে তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সকল ব্যাচ মিলিয়ে বর্তমানে অধ্যয়নরত সর্বমোট শিক্ষার্থীদের সংখ্যা ১৬ হাজার ৯১৭ জন। এদের প্রত্যেককে আগামী ৬ মাসে ১৫০০ টাকা করে সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তি দিলে তাহলে এর পরিমাণ দাড়ায় ১৫ কোটি ২২ লক্ষ ৫৩ হাজার টাকা। অর্থাৎ, প্রতিটি শিক্ষার্থী ৬ মাসে ৯০০০ হাজার টাকা করে পাবে। এই টাকাটা সম্পূরক শিক্ষাবৃওি হিসেবে দিলে মেসভাড়াসহ অন্যন্যা শিক্ষাসংকট দূর হবে।

এই দাবি পূরণে বিশ্ববিদ্যালয়ে বাস ভাড়া, ইন্টারনেট খরচ, আপ্যায়ন বিল, বিদ্যুৎ বিল, পহেলা বৈশাখ, মুজিব শতবর্ষ , বিভিন্ন অনুষ্ঠানেরর উদ্বৃও অর্থ থেকে ও সম্পূরক অর্থ সহায়তা খাতে আসন্ন বাজেটে বরাদ্দ দিতে হবে।

তারা আরো বলেন, শিক্ষার্থীদের সংকট নিরসনে সম্পূরক অর্থ সহায়তা বিষয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণে আগামী ৭ দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে হবে। এর মধ্যে সম্পূরক শিক্ষা বৃত্তির বাস্তবায়ন না হলে শিক্ষার্থীরা কঠোর কর্মসূচির দিকে যাবে।