অসহায় মানুষের পাশে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ

image

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রভাবে সারাদেশে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের পাঁশে দাঁড়িয়েছে আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ যুবলীগ। যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নির্দেশনায় সারাদেশে যুবলীগের নেতাকর্মীরা সক্রিয় রয়েছে। বাংলাদেশে সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ হতে রক্ষায় প্রথমে সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ, দোয়া মাহফিলসহ নানা কর্মসূচি প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে সংগঠনটি। কেন্দ্রের পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও মহানগর নেতারা বিনামূল্যে মাস্ক, হ্যান্ড ওয়াশ, স্যানিটাইজার, হেক্সিসলসহ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন সামগ্রী বিতরণ করছে।

এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণে খাদ্য সামগ্রী মানুষের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন যুবলীগের নেতাকর্মীরা। গত সপ্তাহ থেকে শুর হওয়া এই কর্মসূচি নিজেদের সামর্থের আলোকে চালু রাখা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা। তিনি বলেন, এই বিপদে সব রাজনৈতিক সংগঠনের উচিত মানুষের পাশে দাড়ানো। যতদিন এই বিপদ থেকে দেশ না মুক্ত হবে, ততদিন মানুষের পাশে যাকবে যুবলীগ। সোমবার রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় বাড়ি বাড়ি নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য পৌঁছে দেন তিনি।

এদিকে, চলমান করোনা পরিস্থিতিতে রাজধানীর অসহায় ও কর্মহীন মানুষদের পাশে দাড়িয়েছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। নগরীর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে ভাসমান মানুষ ও পথ শিশুদের কাছে চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য পৌঁছে দিচ্ছেন। সম্প্রতি দেশে করোনা সংক্রামনের জেরে বিভিন্ন শিক্ষা, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও অফিস আদালত বন্ধ হয়ে যাওয়াও কর্মহীন হয়ে পড়েন অনেক খেটে খাওয়া মানুষ। এর প্রেক্ষিতে আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় ছাত্রলীগ। গত ২৯ মার্চ এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান। এরপর থেকে প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের দিয়ে খাদ্য সামগ্রী পাঠা”েছন তিনি। এ প্রসঙ্গে মেহেদী বলেন, জাতীয় দূর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবানে মানুষের পাশে দাড়িয়েছে ছাত্রলীগ। এ দূর্যোগ শেষ হওয়া পর্যন্ত সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে কাজ করবেন বলে জানান তিনি।