করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ালো যুবলীগ

image

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রভাবে সারাদেশে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ যুবলীগ। যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নির্দেশনায় সারাদেশে যুবলীগের নেতাকর্মীরা সক্রিয় রয়েছে। বাংলাদেশে সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ হতে রক্ষায় প্রথমে সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ, দোয়া মাহফিলসহ নানা কর্মসূচি প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে সংগঠনটি। কেন্দ্রের পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও মহানগর নেতারা বিনামূল্যে মাস্ক, হ্যান্ড ওয়াশ, স্যানিটাইজার, হেক্সিসলসহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন সামগ্রী বিতরণ করছে।

গত ২৬ মার্চ থেকে অঘোষিত লকডাউন শুরুর পর গত কয়েক দিন ধরে করোনা প্রতিরোধ সামগ্রীর সঙ্গে খাদ্য সামগ্রীও বিতরণ করছে যুবলীগ। কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি সারাদেশে জেলা-উপজেলা ও মহানগর নেতারা প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করছে।

৪ এপ্রিল শনিবার কেন্দ্রীয় যুবলীগের উদ্যোগে রাজধানীর মিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ভ্যানে করে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে অসহায় মানুষের বাসায় বাসায় গিয়ে পৌঁছে দিয়েছে নেতাকর্মীরা। এছাড়া রাজধানীর ৫৩৭/১ মধ্য মনিপুরে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের অফিসের নিচে অস্থায়ী ক্যাম্প বসানো হয়েছে। সেখানে প্রতিনিদন সকাল ৮টা হতে ১১টা এবং দুপুর ২ টা হতে ৫ পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, করোনাভাইরাস থেকে দেশবাসীকে রক্ষায় সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সরকার সব ধরনের উদ্যোগ নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। যুবলীগের চেয়ারম্যান নেতাকর্মীদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দিয়েছেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমন রোধে মানুষকে সচেতন করাসহ যুবলীগের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। সারদেশেও নেতাকর্মী জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে, এজন্য কেন্দ্রীয় যুবলীগের পক্ষে তাদের ধন্যবাদ জানাই।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের নির্দেশনা মেনে ঘরে অবস্থানকারী গাজীপুর মহানগরের সহস্রাধিক পরিবারের কাছে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন যুবলীগের নেতাকর্মীরা। মহানগর যুবলীগ নেতা হিরা সরকারের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার থেকে এ কর্মসূচি শুরু করা হয়।