ঘণবসতিপূর্ণ এলাকা উল্লেখ করে করোনা হাসপাতাল নির্মাণে বাধা

image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় আকিজ গ্রুপের হাসপাতাল নির্মাণ কাজে বাধা দিয়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর ও এলাকাবাসী। শনিবার (২৮ মার্চ) দুপুর ১টার দিকে কয়েক’শ লোক ভবনটির সামনে অবস্থান নেয় এবং তারা বিক্ষোভ প্রদর্শণ করার পর ভাঙচুর চালিয়ে প্রতিবাদ জানায়। এসময় তারা প্রতিষ্ঠানটির কয়েকজন নিরাপত্তা কর্মীর উপর হামলাও চালায়। এতে তিনজন নিরাপত্তা কর্মী আহত হয়। এ ঘটনার পর হাসপাতাল নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে আকিজ কর্তৃপক্ষ। জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় ৩০১ শয্যার একটি হাসপাতাল তৈরির কাজ করছিল দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী আকিজ গ্রুপ। রাজধানীর তেজগাঁওয়ে আকিজের নিজস্ব দুই বিঘা জমিতে হাসপাতালটি তৈরির কাজ শুরু হয়। যেটি তৈরি হলে বিনা মূল্যে রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার ব্যবস্থা করতো আকিজ গ্রুপ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, সেখানে হাসপাতাল তৈরির পর গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এখবরের পর স্থানীয়রা সেখানে গিয়ে বাধা দেয়। শিল্প এলাকার ১৮৪ নম্বর প্লটে নির্মাণাধীন হাসপাতালের লোকজন আসার পর সেখানে ছুটে আসেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিউল্লাহ শফি। শফিউল্লাহ শফি তেজগাঁও থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি বলেন, আমি মনে করি, এটা যেহেতু মহল্লা হচ্ছে। তাই এখানে করোনারভাইরাসে আক্রানতদের হাসপাতাল হওয়া ঠিক হবে না। আমি এটার পক্ষে না। তবে এখানে করোনাভাইরাসের আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল হবে শুনে হাজারখানেক লোক এসেছিল। আমি এসে তাদের শান্ত করেছি। তারা আমার লোকজন না, তারা স্থানীয় মানুষ বলে দাবি করেন তিনি। রহিমা বেগম নামে স্থানীয় এক নারী বলেন, এই এলাকা ঘণবসতিপূর্ণ। এখানে হাসপাতাল হলে এলাকাবাসীও সংক্রমিত হতে পারে। তাই দূরে কোথাও এই হাসপাতাল নির্মাণ করা হোক। প্রায় দেড় ঘণ্টা বিক্ষোভের পর স্থানীয় কাউন্সিলর ও পুলিশ এসে ‘হাসপাতাল হবে না এবং নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকবে’ এমন আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী চলে যায়।

ডিএমপি’র তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল জোনের সহকারী কমিশনার সালমান হাসান জানান, করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় হাসপাতাল বানাচ্ছে আকিজ গ্রুপ এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী ও স্থানীয়রা প্রতিষ্ঠানটির সামনে বিক্ষোভ করে। তারা এমন কোনো হাসপাতাল হতে দেবে না এমনটাই দাবি তাদের। তিনি আরো বলেন, আমি আকিজ গ্রুপের কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছি, আসলে হাসপাতাল নয় এখানে কোয়ারেন্টাইনের জন্য ভবন হচ্ছে। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি আলী হোসেন বলেন, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে। যারা ভুল খবরে ভুল বুঝে বিক্ষোভ করতে এসেছিল তাদের বুঝিয়ে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। আকিজ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ বশির উদ্দিন জানান, আগামী ৭/৮ দিনের মধ্যে তিনশ শয্যার ওই হাসপাতাল প্রস্তত করতে তাদের ইঞ্জিনিয়ার ও আর্কিটেক্টরা কাজ শুরু করেছেন। হাসপাতালে আইসিইউসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা থাকবে। চিকিৎসা দেওয়া হবে বিনামূল্যে। কিন্ত হাসপাতাল হলে ওই এলাকার বাসিন্দারা করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে পড়বেন-এমন আশঙ্কায় শনিবার দুপুরে দুই শতাধিক লোক আকিজের ওই স্থাপনায় গিয়ে নিরাপত্তাকর্মী ও নির্মাণ শ্রমিকদের ওপর হামলা করে এবং বলাকা মোড়ে বিক্ষোভ করে।