পুরনো রূপে ফিরেছে রেললাইনের দু’পাশের বস্তি

image

রাজধানীর জুরাইন এলাকায় আবারও রেলপথে বসেছে বাজার-সংবাদ

রাজধানীতে রেললাইনের দু’পাশ দখল করে গড়ে ওঠা বস্তি উচ্ছেদের কয়েক মাস পর আবার আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। মালিবাগ, মৌচাক, মহাখালী ও টঙ্গী এলাকায় বস্তি উচ্ছেদ করেছিল রেল কর্তৃপক্ষ। পরে মদ, গাঁজা, ফেনসিডিল ও ইয়াবা বেচাকেনার আসর বসায় তেজগাঁও থানা পুলিশ তেজগাঁও শিল্প অঞ্চলের বস্তি ভেঙে দিয়েছিল। এখন সেখানেও তাবু টাঙিয়ে বসবাস শুরু করছে বস্তিবাসী।

রেললাইনের উভয় পাশে ১১ ফুট জায়গা খালি রাখার নিয়ম থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সে পরিমাণ জায়গা রেলওয়ের দখলে নেই। অনেক স্থানেই রেললাইনের গা ঘেঁষে শুধু অবৈধ বাজার নয়, গড়ে তোলা হয়েছে অসংখ্য স্থাপনা ও বস্তি।

সারাদেশে কত বস্তি রয়েছে সে বিষয়ে ২০১৪ সালে শুমারি করেছিল পরিসংখ্যান ব্যুরো। সেখানে ঢাকা শহরের দুই সিটি করপোরেশনে মোট ৩ হাজার ৩৯৪টি বস্তি ছিল। মোট ঘরের সংখ্যা প্রায় এক লাখ ৭৫ হাজারের মতো। গত ৬ বছরে বস্তি আরও বেড়েছে। প্রতিবছর নদী ভাঙন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ অথবা শুধু কাজের খোঁজেই লাখ লাখ মানুষ ঢাকা আসছেন।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সরকারি-বেসরকারি ফাঁকা জমি কমায় এবং করোনাভাইরাসের মহামারীতে ট্রেন চলাচল সীমিত হওয়ায় রেললাইনের দুই পাশ দখল করে শতশত অস্থায়ী ঘর ও বাজার গড়ে উঠেছে। বাজারগুলোতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের কোলাহল বাড়ছে। আর বস্তির ছোট ছোট ঘরগুলোতে মাদকের আখড়া ও বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে।

তেজগাঁও শিল্প অঞ্চল, মহাখালী, মৌচাক এলাকায় সরেজমিন দেখা গেছে, দু’সপ্তাহ আগে তেজগাঁও শিল্প অঞ্চলে রেলাইনের ধারে গড়ে উঠা বস্তি উচ্ছেদ করে রেল কর্তৃপক্ষ ও তেজগাঁও থানা পুলিশ। এখন সেখানে নতুন করে ফের তাবু টাঙিয়ে অসংখ্য ভসমান মানুষ বসবাস করছেন। মহাখালী ও মৌচাক এলাকায় আগের মতোই টিনের ঘর তৈরি করছেন এসব মানুষ। রেললাইনের পাশে প্রতিনিয়ত মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছেন তারা। বছরের পর বছর ধরে রেললাইন দখল করে ঘর বানিয়ে রাখছে। এ কারণে রেল চলাচলে মারাত্মক বিঘœ ঘটছে। বাজার-বসতির জন্য দেখা যাচ্ছে না রেললাইন। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ দুর্ঘটনা এড়াতে রেললাইনের পাশে ইস্পাত ও দেয়াল দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করে দিলেও এসব বস্তির বাসিন্দারা সেই সীমানার তোয়াক্কা না করেই সীমানার মধ্যে বানিয়েছেন খুপরি ঘর।

রেলওয়ের মহাপরিচালক (ডিজি) মো. শামছুজ্জামান সংবাদকে বলেন, দেশে বন্যার কারণে এই মুহূর্তে রেললাইনের দু’পাশে গড়ে ওঠা বস্তি উচ্ছেদ করবে না রেল কর্তৃপক্ষ। তবে সুযোগ বুঝে বস্তি উচ্ছেদ অভিযান চালনো হবে। রেলওয়ের মহাপরিচালক আরও বলেন, কমলাপুর-টঙ্গী সেকশনে থার্ড-ফোর্থ লাইন নির্মাণ হলে একদিকে রেললাইনের সক্ষমতা যেমন বাড়াবে অন্যদিকে রেললাইনের দু’পাশে বস্তি গড়ে ওঠার ফাঁকা জায়গা থাকবে না।

জানা গেছে, রেলের জমি দখলমুক্ত করা ও মাদকসহ অপরাধীদের আস্তানা নির্মূলে তেজগাঁও থানা পুলিশ ও রেল কর্তৃপক্ষ যৌথ অভিযান চালিয়ে তেজগাঁও, মৌচাক ও মহাখালী এলাকায় কয়েকশ ঘর ভেঙে দেয়। কিন্তু কয়েকদিন পর ফের আগের মতোই রেল লাইনের দু’পাশে কুটরি ঘর গড়ে উঠছে।

মহাখালী রেললাইনের পাশেই ঘর তুলে ২০ বছর ধরে বসবাস করছেন নরসিংদীর মোরিয়ম বেগম। তিনি বলেন, প্রতিবছর কমবেশি দু’একবার ঘর ভাঙে সরকারি লোকজন। ফির নতুন করে ঘর তুলতে হয়। এভাবেই চলতে বছরের পর বছর। আর যারা সুযোগ পাচ্ছেন রেললাইন ছেড়ে অন্যত্রে চলে যাচ্ছেন। আবার অনেকে নতুন করে এসে রেললাইনের পাশেই ঘর তুলছেন।

মৌচাক রেলগেটের পাশেই কুটরি ঘর তুলে বসবাস করছেন আলেয়া বেগম। তিনি বলছেন, সারাক্ষণ দুঃচিন্তায় থাকতে হয়। কবে জানি সরকারে উঠাইয়া দিবো। আমরা না থাকলে ঢাকায় বাসাবাড়ির কাজের লোক কই পাইবেন? আমরা আপনাগো কাজই তো করি। থাকার জায়গা দিবেন না কেন? বেশ জোরালো গলায় কথাগুলো বলছিলেন এই নারী।

সংশ্লিষ্টরা জানান, তেজগাঁও শিল্প অঞ্চলে গড়ে ওঠা বস্তিতে মাদক ও বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত হয়। অনেক মানুষ অপরাধ সংঘটিত করে নিরাপদ জায়গা হিসেবে তেজগাঁও বস্তিতে বেছে নেয়। বস্তিতে মাদক ব্যবসায়ী বা অপরাধীদের আশ্রয় দেন স্থানীয় রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী। অপরাধীরা রাজনৈতিক দলের নেতাদের ছত্রছায়ায় থাকায় অপরাধ করেও সহজেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ এড়িয়ে যায়।

মৌচাক এলাকার স্থানীয়রা জানান, মাঝেমধ্যেই রেললাইনের পাশের অবৈধ বসতি ও বাজার উচ্ছেদ করা হয়। কিন্তু কর্তৃপক্ষের তদারকির অভাবে কিছুদিন না যেতেই সেসব জায়গা ফের দখল করে বসতি ও দোকান গড়ে তোলা হয়।

তেজগাঁও শিল্প অঞ্চলের স্থায়ী বাসিন্দা রাশেদ মিয়া বলেন, রেললাইন বস্তিতে মাদক সেবন, ক্রয়-বিক্রয় অনেকটা ওপেন সিক্রেট। রেললাইন দিয়ে হেঁটে গেলেই একসময় প্রকাশ্যেই চোখে পড়ে মাদকের পসড়া। বর্তমানেও রেললাইনের পাশের ঝুপড়ি ঘরগুলোতে হাট বসার মতো হাঁকডাক দিয়েই বিক্রি হয় মাদক। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বহুবার অভিযান চালালেও অবস্থার উন্নতি হয়নি। রেলের জায়গা দখলমুক্ত রাখতে কিছুদিন আগেই রেল মন্ত্রণালয়ের পক্ষে ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বস্তির ঘর উচ্ছেদ করে। উচ্ছেদের দুই সপ্তাহ যেতে না যেতেই আগের মতো রেল লাইনের দু’পাশে কুঠরি ঘরে উঠেছে।

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ: মৃত্যু বেড়ে ৩৩

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম তল্লার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে গ্যাস লিকেজ

গাবতলীতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

বগুড়ার গাবতলী নেপালতলী ইউনিয়নে সুখানপুকুর এলাকায় ১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল ১০

সিলেটে পুলিশি বাধার পরও যুবদলের প্রতিনিধি সভা

সিলেটের জকিগঞ্জে যুবদলের প্রতিনিধি সভায় পুলিশ দফায় দফায় বাধা দিয়েছে। তবুও শেষ

রাজধানীতে ছুরিকাঘাতে নিহত এক

image

তিন পার্বত্য জেলা পাহাড়ে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ৮শ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প

পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, পর্যটন শিল্পের বিকাশ, বান্দরবানের

জাফলংয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশকে মারধরের ঘটনায় ৩ জন আটক

সিলেটের জাফলংয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশকে মারধরের ঘটনায় ৩ জনেক আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার

গাইবান্ধা ও পলাশবাড়ি থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আল্লার দলের দুই সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

রংপুর র‌্যাব ১৩ এর একটি দল গোপন সংবাদের উপর ভিত্তি করে গাইবান্ধা

সিলেটে খাদিমপাড়ার মৌজা সিটি করপােরেশনে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে দ্বিধাবিভক্তি

সিলেট সিটি করপােরেশনে মৌজা অন্তর্ভুক্তিকরণ নিয়ে দ্বিধাবিভক্তির সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি জেলা প্রশাসন

দুর্গা পূজায় ছুটি ৩ দিন করার দাবি

image