বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের বাসা থেকে গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার

image

বিশিষ্ট শিল্পপতি ও বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের বাসা থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম মো. মোস্তাফিজুর রহমান (৩৮)। ওই বাসায় ১৯ মাস ধরে কাজ করে আসছিলেন তিনি। আজ সকালে খবর পেয়ে ভাটারা থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। তবে তার মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

ভাটারা থানা পুলিশ জানায়, রোববার সকাল ১০টার দিকে খবর পেয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের বাসার নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। বৈদ্যুতিক পাখা ঝুলানোর আংটায় দড়ি লাগিয়ে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার আয়না ক্ষেত গ্রামে।

জানা যায়, প্রায় ১৯ মাস আগে শ্যালক রাসেলের মাধ্যমে ওই বাসায় কাজে আসেন মোস্তাফিজুর রহমান। বাসার বাজার করা ছিল তার দায়িত্ব। তিনি গ্যাস্ট্রো লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন। ২৭ জুন শনিবার রাতে শ্যালক রাসেলকে জানায়, তার পেটে ব্যাথা করছে, কিছু ভালো লাগছে না। তখন শ্যালক তাকে ওষুধ খাইয়ে পাশের কক্ষে ঘুমাতে চলে যান। রোববার (২৮ জুন) সকালে কক্ষ না খোলায় পুলিশকে খবর দেয়া হলে দরজা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

ভাটারা থানার ওসি মোক্তারুজ্জামান বলেন, সকালের দিকে মোস্তাফিজুর রহমানের মরদেহ উদ্ধার করা হলেও রাত ৮টা পর্যন্ত কেউ থানায় আসেনি। মৃত্যু নিয়ে পরিবারের কারও কোন অভিযোগ নেই। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।