মুখে মাস্ক পরে ডাকাতি

image

ছবি : ইন্টারনেট সার্চ-ইঞ্জিন থেকে সংগৃহীত

১ এপ্রিল বুধবার রাত সাড়ে ১২টা থেকে ১টা, করোনাভাইরাসের কারণে চারদিকে সুনসান নীরবতা। সড়কের আশপাশে কেউ নেই। হঠাৎ একটি ট্রাক ব্যাক গিয়ার দিয়ে এসে থামল রাজধানী মোহাম্মদপুরের কলেজগেট এলাকার বিল্লাহ ফার্মার সামনে। সবার মাথায় গামছা বাঁধা, মুখে পরা মাস্ক। মুহূর্তেই দুইজন চাপাতি ও একজন রড নিয়ে ওষুধের দোকানে প্রবেশ করে। তখন ওষুধ কিনতে এসেছিলেন মো. আরমান নামের এক ক্রেতা। কিছু বোঝার আগেই আরমানকে চাপাতির উল্টা পাশ দিয়ে মারতে শুরু করে। ফার্মেসির ভেতরে ছিলেন মালিক নাহিদ বিল্লাহ ও ইউসিবিএল ব্যাংকের এটিএম বুথের সিকিউরিটি মো. সোহাগ। হঠাৎ এসেই কাস্টমারকে চাপাতি দিয়ে মারতে শুরু করলে কিছুই বুঝে উঠতে পারেননি নাহিদ বিল্লাহ ও সোহাগ। একসময় আরমান, সোহাগ ও নাহিদকে মারতে মারতে দোকানের পেছনে নিয়ে যায়। আরমানের পকেটের মানিব্যাগ ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। ফার্মেসিতে থাকা ল্যাপটপ নগদ টাকা নিয়ে দ্রুত চলে যায়। মাত্র ২ মিনিটের মধ্যেই ডাকাতি করে চলে যায় তারা।

এমনটিই দেখা যায় দোকানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ক্রেতা মো. আরমান বলেন, আমি ওষুধ কেনার জন্য ফার্মেসিতে আসি। আমার পকেটে থাকা মানিব্যাগ ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। এখনও আমার ভয়ে গা কাঁপছে। ইউসিবিএল এটিএম বুথের সিকিউরিটি মো. সোহাগ বলেন, তিনজন ফার্মেসিতে ঢোকে, দুইজনের হাতে চাপাতি একজনের হাতে রড ছিল। সবার মুখে মাস্ক পরা। কিছু বুঝে ওঠার আগেই চাপাতি দিয়ে ক্রেতাকে মারতে থাকে। আমি বললাম, কী হয়েছে ভাই থামেন। এ কথা বলতে বলতে আমাদের চাপাতির ভয় দেখিয়ে দোকানের পেছনে নিয়ে যায়। অন্য দুইজন ল্যাপটপ ও ক্যাশের টাকা নিয়ে নেয়। গ্লাসের নিচে দৃশ্যমান ১০০ টাকার নোট ছিল সেটাও গ্লাস ভেঙে নিয়ে যায়।

ফার্মেসির মালিক নাহিদ বিল্লাহ বলেন, তিনজন ফার্মেসিতে ঢুকে কাস্টমারকে চাপাতি দিয়ে মারতে শুরু করে। আমাদের দোকানের পেছনে নিয়ে গেল। ক্যাশে থাকা টাকা ও ল্যাপটপ নিয়ে গেল। আমরা দৌড়ে বের হলাম কিন্তু ততক্ষণে ট্রাক চলে গেছে। হোন্ডা নিয়ে শ্যামলী পুলিশ বক্স পর্যন্ত গেলাম পেলাম না। পরে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ ও র‌্যাব-২ এর একটি টহল দল আসে। ২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকেলে মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেন নাহিদ। মোহাম্মদপুর থানার ওসি আবদুল লতিফ বলেন, আমি জেনে আপনাকে জানাব। র‌্যাব-২-এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আমরা ঘটনাটি জানতে পেরেছি। ইতোমধ্যে সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করে কাজ শুরু করেছি। এ বিষয়ে তেজগাঁও বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার বলেন, ফার্মেসির মালিক মামলা করেছে। উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ ছুটি ৯ এপ্রিল তথা শুক্রবার ও শনিবার মিলিয়ে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। লম্বা এ ছুটি করোনাভাইরাসের আতঙ্কে অনেকেই ঢাকা ছেড়ে গ্রামের বাড়িতে পাড়ি জমিয়েছেন। এতে এখন অনেকটাই ফাঁকা ঢাকা। সন্ধ্যার পরপরই ঢাকার রাস্তায় মানুষের উপস্থিতি খুব একটা চোখে পড়ে না।