ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালকের ছয় মাস কারাদণ্ড

image

ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার হুমকি দিয়ে অর্থ দাবি করার অপরাধে মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়া নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার। ভুয়া পরিচয় ও প্রতারণা করার অপরাধে ওই ব্যক্তিকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ১৮ জুন মঙ্গলবার দুপুরে গুলশান এভিনিউয়ের একটি রেস্টুরেন্ট থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে ডিএনসিসির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়া নিজেকে ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার পরিচয় দিয়ে ওই রেস্টুরেন্ট ম্যানেজারের কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। রেস্টুরেন্ট ম্যানেজারের সন্দেহ হলে তিনি কৌশলে মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়াকে আটকে রাখেন এবং ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারকে জানান। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘটনার সত্যতা খুঁজে পান। অভিযুক্ত মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়া স্বীকার করেন, তিনি প্রায় এক বছর ধরে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট সেজে প্রতারণা করে আসছিলেন। তার কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ২টি দামি স্মার্টফোন ও একটি মানিব্যাগে ১১ হাজার টাকা জব্দ করা হয়। ভুয়া পরিচয় ও প্রতারণা করার অপরাধে দণ্ডবিধির ১৭১ ধারা অনুযায়ী মোহাম্মদ বিন জহির সুমন ভূঁইয়াকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।