download

ঢাবি অধ্যাপকের

যৌন নিপীড়নের প্রমাণ মিললেও ৮ বছরে শাস্তির ‘দেখা মেলেনি’

image

যৌন নিপীড়নের দায়ে তদন্ত কমিটির সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশের পরও অদৃশ্য কারণে শাস্তির আওতায় আনা হয় নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান ওরফে বাহালুলকে। সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ, শুধুমাত্র সরকারদলীয় রাজনীতির কারণে এবং বিভিন্ন সময়ে নিজেদের কার্যসিদ্ধিতে ব্যবহার করায় তাকে শাস্তির আওতায় আনছে না বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। চরম নৈতিক স্খলনের কারণে সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ পাওয়ার পর গত ৮ বছরে দুই উপাচার্যের সময়ে বিভাগীয় কার্যক্রমে যুক্ত না থাকলেও তিনি বিনা পরিশ্রমে নিয়মিত বেতন-ভাতা পেয়েছেন। একই সময়ে মাস্টারদা সূর্যসেন হলে আবাসিক শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানেও তিনি একই দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। যৌন নিপীড়নের বিষয়টি তদন্ত কমিটির মাধ্যমে প্রমাণিত হওয়ার পরও বাহালুলকে শাস্তির আওতায় না আনায় ক্ষোভ আর অসন্তোষ দেখা গেছে শিক্ষকদের মাঝে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান ওরফে বাহালুল বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছে ‘যৌন নিপীড়ক শিক্ষক’ হিসেবে পরিচিত। এই পরিচিতির পেছনেও রয়েছে ঘটনা। বিভাগেরই এক ছাত্রী বাহালুলের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আনেন ২০১২ সালে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে আরও কয়েকজন ছাত্রী যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তোলে। বিভাগ থেকে তাৎক্ষণিক শাস্তি দিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এদিকে, অভিযুক্ত বাহালুলও নিজেকে বাঁচাতে ভুক্তভোগী ছাত্রীদের বিরুদ্ধে মনগড়া একটি অভিযোগ আনেন। দুই পক্ষের অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ পর্যালোচনা করে কমিটি বাহালুলের নৈতিক স্খলনের প্রমাণ পায়। এজন্য তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করে। কিন্তু গত ৮ বছরেও যৌন নিপীড়নের শাস্তি দেয়া হয়নি বাহালুলকে। তবে, নৈতিক স্খলনের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ২০১৩ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ এমরান হুসাইনকে ‘ছাত্রীকে নিপীড়ন’র অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। একইভাবে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলামকে ২০১৪ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়। চলতি বছরের ৯ সেপ্টেম্বর তাকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। কিন্তু বাহালুলকে শাস্তি তো দূরে থাক উল্টো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে বিভিন্ন সময়ে নিজেদের কার্যসিদ্ধিতে ব্যবহার করেছে। অধ্যাপক ড. আআমস আরেফিন সিদ্দিকের সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতিতে নেতৃত্ব দেয়া শিক্ষকদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন এই বাহলুল। এজন্য বাহালুলের যৌন নিপীড়নের ‘ফাইল’টি দীর্ঘদিন ধরে চাপা পড়ে আছে। সম্প্রতি তিনি বিভাগে ঢোকার জন্য জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্স্ট স্ট্যাটিউটের ৪৫(৩)(৪) উপধারায় এবং বিশ্ববিদ্যালয় ৭৩’র আদেশের ৫৬(৩) উপধারায় স্পষ্ট নির্দেশনা দেয়া আছে। সেখানে বলা আছে- ‘নৈতিক স্খলন, অদক্ষতা, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও চাকুরিবিধি পরিপন্থী’ কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকার অপরাধে কোনো শিক্ষক বা কর্মকর্তাকে টার্মিনেট করা যেতে পারে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চাকরিচ্যুত করার জন্য ১৯৭৩ সালের আদেশে যেই কারণগুলো রয়েছে, সেই ধরনের অপরাধ সংঘটিত করেও বাহালুল বছরের পর বছর এখানে চাকরি করে যাচ্ছেন। অপরাধী যেই হোক, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের আওতায় কেউ অপরাধী হলে দলীয় বিবেচনায় না এনে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে এ ধরনের অপরাধ কমবে বলে মনে করেন তারা।

তদন্ত কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের অক্টোবরে মাহমুদুর রহমান ওরফে বাহালুলের বিরুদ্ধে বিভাগের একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই বছরের ৮ অক্টোবর তাকে তাৎক্ষণিকভাবে যথাক্রমে তিন মাস এবং ২০১৩ সালের ১ জুন হতে এক বছরের জন্য বিভাগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এরপর ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইবরাহিমকে (বর্তমানে পিএলআর) আ্হ্বায়ক করে পাঁচজন শিক্ষকের সমন্বয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- ড. মো: আতাউর রহমান মিয়াজী, অধ্যাপক ড. আব্দুল বাছির, একেএম খাদেমুল হক ও সুরাইয়া আখতার। তদন্ত কমিটি ২০১৩ সালের ২৫ মার্চ ৩ পৃষ্ঠার একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন ও সুপারিশ জমা দেন। যেখানে বলা হয়েছে- ভুক্তভোগী ছাত্রী ও অভিযুক্ত শিক্ষক বাহালুলের অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ পর্যালোচনা করে তদন্ত কমিটি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে, ‘বাহালুল শিক্ষকসুলভ গন্ডি অতিক্রম করে ছাত্রীদের সঙ্গে যে সম্পর্ক স্থাপন করেছে তা নৈতিক স্খলন ছাড়া কিছু নয়। অতএব নৈতিক স্খলনের অপরাধে মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান বাহালুলের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের অনুকূলে বিভাগীয় একাডেমিক কমিটির বিবেচনার জন্য কমিটির পক্ষ থেকে সুপারিশ করা হলো।’

এদিকে, সাবেক উপাচার্য আরেফিন সিদ্দিকের সময়ে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মতে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এই সময় শিক্ষকেদের দ্বারা ছাত্রী লাঞ্ছনার অভিযোগ ওঠে। অভিযুক্ত শিক্ষকদের মধ্যে অন্যতম এই বাহালুল। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত বিচার না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেদিন লাঞ্ছনার শিকার বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি উম্মে হাবীবা বেনজীর। তিনি বলেন, গণমাধ্যমসূত্রে আমরা জানতে পারি যৌন নিপীড়নের দায়ে বাহালুলের বিরুদ্ধে তার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ করেছিল। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তা আমলে তো নেয়ই নি উল্টো তাকেই উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের সময় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় লেলিয়ে দেয়া হয়েছিল। আমি মনে করি, তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। আর আগের ঘটনায় শাস্তি না দেয়ায় তার পক্ষে পরবর্তীতেও ছাত্রীদের শ্লীলতাহানি সম্ভব হয়েছে। এজন্য আমি তার কঠিন শাস্তি দাবি করছি।

এসব বিষয়ে জাহাঙ্গীর বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন হয়রানি সংক্রান্ত তদন্ত সেলের অন্যতম সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক জোবাইদা নাসরিন বলেন, কোনো শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠলে তিনি বিভিন্ন উপায়ে উপাচার্যকে খুশি করার চেষ্টা করেন। এজন্য উপাচার্যবিরোধী আন্দোলনে তিনি শিক্ষার্থীদের ঠেকাতে সামনের সারিতে থাকেন। এসব কাজকে তিনি যৌন নিপীড়নের ঘটনা থেকে বাঁচার উপায় হিসেবে নেন। তিনি বলেন, কোনো শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠলে দলীয় বিবেচনায় না এনে তদন্ত সাপেক্ষে অভিযোগের প্রমাণ পেলে তার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করা প্রয়োজন বলে মনে করি। দ্রুততম সময়ের মধ্যে শাস্তির ব্যবস্থা করা হয় না বলেই এ ধরনের ঘটনাগুলোর পুনরাবৃত্তি ঘটে বলে মনে করেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ক্ষেপে যান তদন্ত কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. আব্দুল বাছির। তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন, এই রিপোর্ট তুমি পেলে কিভাবে! তুমি কি কমিটির সদস্য ছিলে! বিভাগের মধ্যে একটা ঘটনা ঘটেছে, শিক্ষকরা সেটা তদন্ত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে দিয়েছে। এখন তুমি আমাকে খোঁচাচ্ছো, এটা নিয়ে কোনো ঘটনা ঘটল কিনা। তোমার একটা খারাপ উদ্দেশ্য আছে নিশ্চয়ই।

তদন্ত কমিটির অন্যতম সদস্য অধ্যাপক ড. আতাউর রহমান মিয়াজী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন উপাচার্যের কাছে তদন্তের রিপোর্ট এবং বিভাগের সিদ্ধান্ত পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে আমাদের জানা নেই। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ যখন তদন্তের রিপোর্ট পেয়ে যান, তখন তাদের উচিৎ পদক্ষেপ নেয়া। তারা কেন কোনো সিদ্ধান্ত নেন নি, তা আমাদের জানানো হয় নি।

তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সরাসরি শিক্ষক অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইবরাহিম (বর্তমানে পিএলআর) বলেন, তদন্তে আমরা তার বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ার পর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করি। কিন্তু আজ পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয় নি। অধ্যাপক ইবরাহিম বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক শাস্তি চলমান থাকা অবস্থায় সহযোগী অধ্যাপক হওয়ার জন্যও আবেদন করেছে। এছাড়া, সে বিভাগে আসার জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে তাদের শক্ত খুঁটি ভাবে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কেন তাকে ‘অনিবার্য’ মনে করছে, সেটা জানা নেই।

এ বিষয়ে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোশাররফ হোসাইন ভুঁইয়া বলেন, মাহমুদুর রহমান বাহালুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। তবে, এখন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয় নি। তাই এ বিষয়ে আমার কিছু বলার নেই। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এই বিষয়ে ভালো বলতে পারবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এ ধরনের একটা ঘটনা ঘটেছিল। এটা হয়তো কারো ‘এটেনশন’-এ নেই। আমরা বিষয়টি দেখছি।

যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল না থাকায় পার পেয়ে যাচ্ছেন শিক্ষকরা:

যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে কাজ করেছেন, এমন শিক্ষকরা বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে কোনো শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠলেও সাজা হয় কম। শিক্ষক রাজনীতি এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিচারহীনতার সংস্কৃতিও একটা বড় কারণ। এছাড়া, যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল না থাকায় শিক্ষকরা ছাত্রীদের যৌন নিপীড়ন বা হয়রানি করার পরও পার পেয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক জোবাইদা নাসরিন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন নিপীড়ন বিরোধী কোনো সেল নেই। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আরেফিন সিদ্দিককে হাইকোর্ট বেশ কয়েকবার কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছেন। কিন্তু যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল গঠনে হাইকোর্টের নির্দেশনা মানা হয় নি। অন্যদিকে, যৌন নিপীড়নের মতো ঘটনাকে বিশ্ববিদ্যালয় খুব বেশি মনোযোগ দেয় না। আমরা যে ঘটনাগুলো শুনি, সেগুলো ডিসিপ্লিনারি বোর্ডের কাছে যায়। তবে, এটা একটা দীর্ঘসূত্রতা। যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল থাকলে এটা দ্রুত সম্পন্ন হতো। যখন কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এ ধরনের সেল থাকে না, তখন নিপীড়নকারী বুঝে যায় যে, নিপীড়ন করে রেহাই পাওয়ার সুযোগ আছে। এজন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল গঠন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

ডিএসসিসিতে পরিচ্ছন্ন কর্মীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ : আহত ৬

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নগর ভবনের ভিতরে পরিচ্ছন্ন কর্মীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছে। তারা হলেন পরিচ্ছন্ন কর্মী হেদায়েত কবির (৩৫), ইউসুফ দাস (৫০), রবিলাল (৩৫), স্বপন (৩৫), হাসান (৫০) ও তার ছেলে গোলাম রাব্বানী (২৩)।

দু’বছর ঘটনা ধামাচাপা দিয়ে রাখা হয়

image

বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন র্কমসূচী

image

ঢাকায় ৪ জঙ্গি গ্রেফতার

ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

রাজধানীতে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে র‌্যাবের অভিযান

রাজধানীতে করোনা মোকাবিলায় জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) র‌্যাবের চারটি ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করেছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদে কর্মবিরতি, কালো ব্যাজ ধারণ

image

সংবাদ’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের মৃত্যুতে সোনারগাঁয়ে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন সংগঠনের শোক

image

রাজধানীতে হিযবুত তাহরীরের সদস্য গ্রেপ্তার

image

এবার মিরপুরের বস্তিতে আগুন

image

কারওয়ানবাজারে মাস্ক না পরায় ১২ জনকে জরিমানা

image

মহাখালীর বস্তিতে আগুনে পুড়লো বহু ঘর

image

মহাখালীতে আগুনে পুড়ল বহু বস্তিঘর

image

বুড়িগঙ্গা নদীর তীরের ২৭০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

image

রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে প্রাণ হারালেন গৃহবধূ

image

বনানীতে আবাসিক ভবনে আগুন

image

নির্মাণাধীন ভবনে ২১ বোমা

রাজধানীর উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের ১৩ নম্বর রোডে বোমা রয়েছে এমন খবর পেয়ে একটি নির্মাণাধীন বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর আ’লীগ কমিটিতে হাজী সেলিম

image

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় প্রস্তুত সরকার

image

শাহবাগে নবাব হাবিবুল্লাহ সড়ক প্রশস্তকরণে মেয়র তাপসের পরিদর্শন

বুধবার (১৮ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন নবাব হাবিবুল্লাহ সড়ক থেকে হাতিরপুল সংযোগ সড়ক পর্যন্ত রোগী ও জনসাধারণের সুবিধার জন্য সড়ক প্রশস্ত করণের বিষয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন মেয়র ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস পরিদর্শন করেন।

রংপুরে পুলিশের হাতে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় অবস্থান ধর্মঘট বিক্ষোভ

image

২১ নভেম্বর ঢাকা সেনানিবাসে যান চলাচল সীমিত থাকবে

image

মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে রাজধানীতে নামছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

image

৫ হাজার মামলার নথি নষ্ট

image

‘নগদ’-এ দেওয়া যাবে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সব বিল

image

আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় থাকবে না ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ

image

১১ হাজার পিস ইয়াবাসহ বাড্ডায় যুবক আটক

image

আগামীকাল রাজধানীর যেসব এলাকায় ৮ ঘণ্টা থাকবে না বিদ্যুৎ

image

ধানমন্ডিতে ভবন থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু

রাজধানীর ধানমন্ডিতে ভবন থেকে নিচে পড়ে আরনাজ আহমেদ (১৯) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

রাজধানীতে বাসে আগুন দেয়ার ঘটনায় ১৪৯ জনের নামে মামলা

image

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ৯ বাসে আগুন

image

এক ঘণ্টার মধ্যে রাজধানীতে ৩ বাসে আগুন

image

সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের অভিযানে ১০৩ গাড়ি ডাম্পিং

image

মাতুয়াইলে বাসের ধাক্কায় নারীর মৃত্যু

image

আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকবে না

image

ডিএনসিসি এলাকায় ট্রেড লাইসেন্স নবায়নের সময় বাড়ল

image

রাজধানীতে ৪২ রুটে চলবে ২২ কোম্পানির বাস

image

রাজধানীতে চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

image

হাসপাতাল কর্মচারীদের মারধরে পুলিশ কর্মকর্তা মৃত্যুর অভিযোগ

image

আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় থাকবে না ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ

image

আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকবে না

image

চট্টগ্রামে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের গণঅবস্থান

image

নগর এলাকায় দুর্যোগ ঝুঁকি মোকাবেলায় কাজ করছে নগর স্বেচ্ছাসেবক

image

কবে ঢাকার কোথায় ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকবে না

image

মোহাম্মদপুরজুড়ে ছিনতাই করে বেড়াতো তারা

image

ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসক ছাড়া অস্ত্রোপচারের অভিযোগ

image

ফ্রান্স বিরােধী স্লােগানে প্রকম্পিত সিলেট নগর

image

আজিমপুরে লিফট ছিড়ে আহত ৩

image

রাজধানীতে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের অবরোধ

image

রাজধানীতে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

image

প্রথমে শ্লীলতাহানির মামলা,পরেে ঐ মামলার আসামিকে জেল থেকে ছাড়াতে নানা কাণ্ড

image

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৪৮

রাজধানীতে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৪৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মেয়র আতিকের আর্থিক সহায়তা

image

বস্তির আগুনে দগ্ধ দুজনকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি

image

কল্যাণপুরের বস্তিতে আগুন : দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

image

আগুন থেকে রক্ষা পেলো খিলগাঁওয়ের মুরগিপট্টি

image

ভুয়া চিকিৎসকের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান

image

সবার জন্য নিরাপদ আবাসন নিশ্চিতে কাজ করছে সিসিক- মেয়র আরিফ

image

পেঁয়াজ আমদানিতে স্বস্তি ফিরছে, আলুর বাজার বেহাল

image

বিদেশি মুদ্রাসহ শাহ আমানতে আটক ১

image

রাজধানীতে ছুরিকাঘাতে কারখানার শ্রমিক নিহত

image

বংশালের নওয়াব ইউসুফ মার্কেটে ২০টি স্থায়ী স্থাপনা উচ্ছেদ

image

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ওয়েলডিং মিস্ত্রির মৃত্যু

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী এলাকায় একটি কারখানায় ওয়েলডিংয়ের কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহসান উল্লাহ (২৭) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৬ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ৯টায় মৃত ঘোষণা করেন।

হাজী সেলিমের বাড়ি অভিযানে টর্চার সেলের সন্ধান

image

অপহরণ বিয়ে ও ধর্ষণের অভিযোগে বাবা ছেলে গ্রেফতার!

image

নারায়ণগঞ্জে সড়কের পাশে মিললো নারী পাটকল শ্রমিকের লাশ

image

চট্টগ্রামে নতুন করোনা আক্রান্ত ৮১

image

গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেল বৃদ্ধের

image

জালনোট-ডলার প্রস্তুতকারী চক্রের ৬ সদস্য আটক

image

ভারী বর্ষণে পানির নিচে চট্টগ্রাম নগরীর নিম্নাঞ্চল

image

কবে ঢাকার কোথায় ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকবে না

image

মোহাম্মদপুরজুড়ে ছিনতাই করে বেড়াতো তারা

image

ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসক ছাড়া অস্ত্রোপচারের অভিযোগ

image

ফ্রান্স বিরােধী স্লােগানে প্রকম্পিত সিলেট নগর

image

আজিমপুরে লিফট ছিড়ে আহত ৩

image

রাজধানীতে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের অবরোধ

image

রাজধানীতে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

image

প্রথমে শ্লীলতাহানির মামলা,পরেে ঐ মামলার আসামিকে জেল থেকে ছাড়াতে নানা কাণ্ড

image

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৪৮

রাজধানীতে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৪৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মেয়র আতিকের আর্থিক সহায়তা

image

বস্তির আগুনে দগ্ধ দুজনকে বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি

image

কল্যাণপুরের বস্তিতে আগুন : দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

image

আগুন থেকে রক্ষা পেলো খিলগাঁওয়ের মুরগিপট্টি

image

ভুয়া চিকিৎসকের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান

image

সবার জন্য নিরাপদ আবাসন নিশ্চিতে কাজ করছে সিসিক- মেয়র আরিফ

image

পেঁয়াজ আমদানিতে স্বস্তি ফিরছে, আলুর বাজার বেহাল

image

বিদেশি মুদ্রাসহ শাহ আমানতে আটক ১

image

রাজধানীতে ছুরিকাঘাতে কারখানার শ্রমিক নিহত

image

বংশালের নওয়াব ইউসুফ মার্কেটে ২০টি স্থায়ী স্থাপনা উচ্ছেদ

image

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ওয়েলডিং মিস্ত্রির মৃত্যু

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী এলাকায় একটি কারখানায় ওয়েলডিংয়ের কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহসান উল্লাহ (২৭) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৬ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ৯টায় মৃত ঘোষণা করেন।

নির্মাণের দিনই গুঁড়িয়ে দেয়া হল ‘আগ্রাসনবিরোধী আট স্তম্ভ’

image

ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি : ঢাবি শিক্ষক সমিতি

image

খিলগাঁওয়ে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ, রিকশাচালক গ্রেফতার

image

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ

image

নারী নিপীড়ন বন্ধ ও দোষীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার দাবীতে মানববন্ধন

image

রাজধানীতে যুবককে গলা কেটে হত্যা

image

এলিফ্যান্ট রোডে রাস্তা পারাপারের সময় যুবক নিহত

image

করোনায় আক্রান্ত জাহাঙ্গীর কবির নানক

image

রাজধানীতে পুলিশ হেফাজতে যুবকের মৃত্যু

রাজধানীর পল্টন মডেল থানায় পুলিশ হেফাজতে মাদকসহ আটক হওয়া এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

দুই সন্তানের গলাকেটে নিজের গলাকাটার চেষ্টা, মেয়ের মৃত্যু

রাজধানীর হাজারীবাগ বটতলা এলাকায় দুই সন্তানের গলা কেটে নিজের গলায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বাবা।

শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

image

বিকাশ এজেন্টকে কুপিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৪

image

ডিবি পরিচয়ে ডাকাতির হোতাসহ তিনজন গ্রেপ্তার

গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির ঘটনায় চক্রের মূল হোতাসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। গতকাল সোমবার (২৮ সেপেটম্বর) দিবাগত রাতে রাজধানী থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসমানী হাসপাতাল নার্সেস এসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন

image

সিলেট সিটি করপােরেশনের ৭৪৩ কােটি টাকার বাজেট পেশ

image

ধানমন্ডিতে নির্মাণাধীন ভবন ধসে নিহত ৩

image

নির্মাণাধীন ভবন ধসে নিহত ৩

image

রাজধানীতে মাদক সেবন-বিক্রির অপরাধে গ্রেফতার ৮৫

image

রাজধানীতে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার ৪৬

image

আজ ৫০০ জনকে টিকিট দেবে সৌদি এয়ারলাইন্স

image