অবৈধ সম্পদ শেখ মারুফকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

image

ক্যাসিনোর কারবারের মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে শেখ সেলিমের ছোট ভাই শেখ ফজলুর রহমান মারুফকে প্রায় চার ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সোয়া ৩টা পর্যন্ত দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনসহ কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন ।

এর আগে বেলা ১১টায় সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হন শেখ মারুফ। স্বজনসহ বেশ কয়েকজন কর্মী-সমর্থক নিয়ে সাদা রঙের প্রাইভেটকারে করে আসেন তিনি। তাকে নির্ধারিত খাতায় নাম ও স্বাক্ষরসহ বিস্তারিত লিখতে দেন দুদক কর্মীরা। পরে মারুফকে কিছুক্ষণ অপেক্ষাকক্ষে রেখে তিন তলায় দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের রুমে নেওয়া হয়। তার সঙ্গীদের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তারা দুদকের প্রধান গেইটের সামনে অপেক্ষা করেন।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বেরিয়ে শেখ মারুফ সাংবাদিকদের বলেন, “দুদকের কর্মকর্তাবৃন্দ কিছু তথ্যের জন্য আমাকে ডেকেছিলেন। ওনাদের আমি বিস্তারিত তথ্য দিয়েছি। আমি বলেছি, আপনাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করব।

গত ২৯ ডিসেম্বর পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের স্বাক্ষরে শেখ মারুফকে তলব করে নোটিস পাঠানো হয়। ‘ঠিকাদার জি কে শামীমসহ অন্যান্য ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরকারি কর্মকর্তাদের শত শত কোটি টাকা ঘুষ দিয়ে বড় বড় ঠিকাদারি কাজ নিয়ে বিভিন্ন অনিয়মের মাধ্যমে সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, ক্যাসিনো ব্যবসা করে শত শত কোটি টাকা অবৈধ প্রক্রিয়ায় অর্জন করে বিদেশে পাচার ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগের’ বিষয়ে বক্তব্য শুনতে তাকে তলব করা হয়।

দুদক সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ সেলিমের ছোট ভাই শেখ মারুফের বিরুদ্ধে ক্যাসিনো নিয়ন্ত্রণ, টেন্ডারবাজি, কমিশন, চাঁদাবাজিসহ অবৈধ কর্মকান্ডের মাধ্যমে শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পেয়েছে দুদক। অভিযোগ অনসুন্ধানের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে তলব করে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এর আগে গত ২১ অক্টোবর এনবিআরের অনুরোধে যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুর রহমান মারুফ, তার স্ত্রী সানজিদা রহমান ও তাদের দুইটি প্রতিষ্ঠান টি-টোয়েন্টিফোর গেমিং কোম্পানি লিমিটেড ও টি-টোয়েন্টিফোর ল ফার্ম লিমিটেডের ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়েছিল।

পাঠানো নোটিশে বলা হয়েছে, ‘সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে বর্ণিত অভিযোগের বিষয়ে আপনার বক্তব্য শ্রবণ ও গ্রহণ করা একান্ত প্রয়োজন। অভিযোগের বিষয়ে নোটিশে আরো বলা হয়, ‘ঠিকাদার জি কে শামীমসহ অন্যান্য ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরকারি কর্মকর্তাদের শত শত কোটি টাকা ঘুষ দিয়ে বড় বড় ঠিকাদারি কাজ নিয়ে বিভিন্ন অনিয়মের মাধ্যমে সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, ক্যাসিনো ব্যবসা করে শত শত কোটি টাকা অবৈধ প্রক্রিয়ায় অর্জন করে বিদেশে পাচার ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধান চলছে।

শিক্ষার প্রকৌশল বিভাগের ৩ জনের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান

image

জি কে শামীমের অবৈধ কজের সহযোগী হয়ে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুই প্রকৌশলীসহ তিনজনকে দুদকের তলব

image

কিশোরগঞ্জের এমপি আফজালের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের নেমেছে দুদক

image

জি কে শামীমের বিরুদ্ধে অভিযোগের অনুসন্ধানে ব্যবসায়ী মোমতাহিদুরকে জিজ্ঞাসাবাদ

image

ব্যাংকের চেয়ারম্যানসহ তিন জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

image

সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের এপিএসকে দুদকে তলব

image

ঢাকা ব্যাংকের ২ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত মামলার চার্জশিট দাখিলে দুদকের অনুমোদন

image

সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি অনুসন্ধানে অপেক্ষা করতে বললেন দুদক চেয়ারম্যান

image

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এপিএস’কে হাজির হতে দুদকের দ্বিতীয় দফায় তলবি নোটিশ

image