খালেদের গোপন টর্চার সেল

image

যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার গোপন টর্চার সেলের সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। ওই টর্চার সেল থেকে নির্যাতনে ব্যবহৃত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি, লাঠিসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে গভীর রাতে চলত নির্যাতন। এ টর্চার সেলে ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন ব্যক্তিকে চাঁদার জন্য ধরে নিয়ে প্রচণ্ড নির্যাতন হতো। খালেদ র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য স্বীকার করেছে। গভীর রাতে তার দেয়া তথ্যমতে, অভিযান চালানো হয় র‌্যাব জানায়, গত বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনের উল্টো দিকে একটি ভবনের চতুর্থ তলায় ওই টর্চার সেলের সন্ধান পায় র‌্যাব-৩ এর একটি দল। তার চাহিদামতো চাঁদা দাবির পর কেউ চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হলে এই টর্চার সেলে আটকে রেখে নির্যাতন চালানো হতো। নির্যাতিত ব্যক্তির চিৎকারের শব্দ কেউ যাতে না শুনে তার জন্য উচ্চস্বরে টেলিভিশন ও গান বাজানো হত। নির্যাতনের সময় ব্যবসায়ীর স্পর্শকাতর স্থানে বৈদ্যুতিক তারের শক দেয়া হতো বলে জানা গেছে। ওইসময় তার ক্যাডার বাহিনীরা ভবনের আশপাশে নানা বেশে অবস্থান করত। তার বাহিনীর ভয়ে কেউ মুখ খুলত না। চাঁদার টাকার ভাগবাটোয়ারা গডফাদার পর্যন্ত পৌঁছে যেত। এ চক্রে ১শ’র বেশি ক্যাডার শুধু মোটরসাইকেল নিয়ে তার পেছনে থাকত। সে যে এলাকা দিয়ে চলত সেখান দিয়ে রাস্তায় তার জন্য অন্য যানবাহন বন্ধ করে দেয়া হতো। এমনকি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ক্যাডার বাহিনী দেখে নিরব থাকত। খালেদের আরও অপকর্মের সন্ধানে র‌্যাবের অনুসন্ধান চলছে। উদ্ধার হয়েছে নির্যাতনের নানা ছবি।