মেহেদী হত্যায় তিনজন গ্রেফতার

image

দিনাজপুরের হাকিমপুরে চাঞ্চল্যকর মেহেদী হাসান সনি (৩৪) হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীসহ তিন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। তারা হলো- দেলোয়ার হোসেন (২৫), দেলোয়ারা বেগম (৪৫) ও হারুন (৩৫)। ২৫ ডিসেম্বর বুধবার রাত দেড়টার দিকে রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. সারওয়ার-বিন-কাশেম জানান, তিন বছর আগে নিহত মেহেদি হাসানকে চাকরি দেয়ার কথা বলে ৪ লাখ টাকা নেয় মিজানুর রহমান। দীর্ঘদিন পরও চাকরি না হওয়ায় মিজানের কাছে টাকা ফেরত চান নিহত মেহেদি। বিভিন্ন তালবাহানার পর মিজান আত্মগোপন করে। এক পর্যায়ে গত ৪ ডিসেম্বর সকালে হাকিমপুরের বোয়ালদাড় গ্রামের দেলোয়ারার বাড়িতে টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে বিবাদ হয়। এ সময় মিজানের নির্দেশে গ্রেফতার দেলোয়ার হোসেনসহ তার সহযোগীরা মেহেদি হাসানকে কপালে ও বুকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এ ঘটনায় ওই দিনই হাকিমপুর থানায় মেহেদির পরিবার মামলা (৪-৪/১২/১৯) করে। মামলার পর ছায়া তদন্তে মাঠে নামে র‌্যাব।

অধিনায়ক আরো জানান, গোয়েন্দা নজরদারি ও প্রযুক্তির সহায়তায় রাজধানীর আব্দুল্লাহপুরে অভিযান চালিয়ে চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকান্ডের তিন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার আসামিরা মেহেদি হাসানকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। পাওনা টাকার জেরে ৪ ডিসেম্বর বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে মিজানের নির্দেশে মেহেদিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয় বলে জানায় তারা। এ ঘটনায় জড়িত অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে মাঠে কাজ করছে র‌্যাব।

সম্রাট-শামীমের নিয়ন্ত্রনে গণপূর্ত টেন্ডার ভাগ-ভাটোয়ারা করেছেন মুশফিক ও শাহে আলম

image

আওয়ামী লীগ নেতা ডাবলুর অবৈধ সম্পদ অনুসন্ধান করবে দুদক

image

দক্ষিনের কাউন্সিলর ফরিদ উদ্দিন রতনকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

image

ছদ্মবেশে পাসপোর্ট প্রত্যাশী দুদকের নিকট সরাসরি ঘুষ দাবি

image

দৈনিক পত্রিকার ওয়েবসাইটগুলোর নকলকারী ও বানোয়াট সংবাদ প্রচারক গার্ডিয়ানের এমডি গ্রেফতার

image

নাম অপ্রকাশিত এক সরকারি কর্মকর্তা মোটা ঘুষ লেনদেনে প্রমাণিত

image

শিক্ষার প্রকৌশল বিভাগের ৩ জনের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান

image

জি কে শামীমের অবৈধ কজের সহযোগী হয়ে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুই প্রকৌশলীসহ তিনজনকে দুদকের তলব

image

কিশোরগঞ্জের এমপি আফজালের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের নেমেছে দুদক

image