স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘রেমাক্রী’

image

বাংলাদেশের সবচেয়ে দুর্গম পর্যটন এলাকা রেমাক্রী। বান্দরবানের থানচি উপজেলার পাহাড়ি এ এলাকায় যেতে হয় হেঁটে ও নৌকায়। প্রায় আধাবেলার পরিশ্রমের পর পৌঁছানো যায় এই নৈসর্গিক এলাকায়।

অত্যন্ত দুর্গম হওয়ায় অনেক পর্যটকই যেতে পারেন না এখানে। সেই স্থানটি নিয়ে নির্মিত হলো একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এর নামও ‘রেমাক্রী’।

এটি তৈরি করেছেন মাকসুদ হোসাইন।

তিনি জানান, ইতোমধ্যে স্বল্পদৈর্ঘ্যটি কানাডার দক্ষিণ এশীয় চলচ্চিত্র উৎসব টরন্টোতে আমন্ত্রিত হয়েছে। আগামী ১৪ আগস্ট এটি সেখানে দেখানো হবে।

এই পরিচালক গনমাধ্যমকে বলেন, ‘বাবা ও ছেলের গল্প এতে উঠে আসবে। তাদের ব্যাটারিচালিত একটি টিভি আছে। সেটি নষ্ট। অন্যদিকে ছোট ছেলেটি মেসি ভক্ত। সে বাবার কাছে বায়না ধরে যেভাবেই হোক বিকালের মধ্যে টিভিটা বান্দরবান থেকে ঠিক করে এনে দিতে। এতে বাবা ও ছেলের টিভি ঠিক করার জার্নিটা তুলে ধরা হয়েছে। সঙ্গে থাকছে প্রাকৃতিক স্বর্গীয় সৌন্দর্য।’

জানা যায়, গত বছরে এর দৃশ্যধারণ হয়েছে অঞ্চলটিতে। এতে বাবার ভূমিকায় আছেন ফজলুর রহমান বাবু ও ছেলে হিসেবে আছে শরিফুল ইসলাম।