করোনায় ৮ ঘণ্টায় ভার্চুয়াল কনসার্টে ১৩ কোটি ডলারের তহবিল সংগ্রহ

image

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় স্বাস্থ্যকর্মীসহ এ লড়াইয়ে থাকা সেনানীদের সহায়তায় ঘরে বসেই বিশেষ কনসার্টের মাধ্যমে ১৩ কোটি ডলারের তহবিল সংগ্রহ করা হয়েছে।

‘দ্য ওয়ান ওয়ার্ল্ড: টুগেদার অ্যাট হোম’ শিরোনামে শনিবার মধ্যরাত থেকে আট ঘণ্টার এই ভার্চুয়াল কনসার্ট শেষে আয়োজক গ্লোবাল সিটিজেন মুভমেন্টের বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ঐতিহাসিক এই বৈশ্বিক সম্প্রচারের পর কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের সহায়তায় মোট ১২ হাজার ৭৯ কোটি ডলারের প্রতিশ্রুতি এসেছে।

এই অর্থের মধ্যে পাঁচ কোটি ৫১ লাখ ডলার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) কোভিড সলিডারিটি রেসপন্স ফান্ডে দেওয়া হবে। বাকি সাত কোটি ২৮ লাখ ডলার মহামারী প্রতিরোধ যুদ্ধে স্থানীয় ও আঞ্চলিক স্বাস্থ্যকর্মীদের সহায়তায় ব্যয় হবে।

দুই পর্বে বিভক্ত কনসার্টটি সারা বিশ্বের দর্শকরা উপভোগ করেন। বাংলাদেশ সময় শনিবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে রোববার ভোর ৬টা পর্যন্ত লাইভ স্ট্রিমিং চলে। এরপর দুই ঘণ্টা টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়।

রোলিং স্টোনসের সব সদস্য ও বিলি আইলিশসহ শতাধিক শিল্পী নিজেদের ঘর থেকে সংগীত পরিবেশন করেন। করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবিলার লড়াইয়ে থাকা নার্স ও ডাক্তারদের বাস্তব জীবনের গল্পও তুলে ধরা হবে ওই অনুষ্ঠানে।

মার্কিন টিভি ব্যক্তিত্ব স্টিফেন কোলবার্ট, জিমি কিমেল ও জিমি ফ্যালোনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠেয় এই কনসার্টে অন্যদের মধ্যে এলটন জন, টাইলর সুইফ্ট ও ওপরা উইনফ্রি সংগীত পরিবেশন করেন।

রোলিং স্টোনস ব্যান্ডের চার সদস্যের সবাই- মিক জ্যাগার, কিথ রিচার্ডস, চার্লি ওয়াটস ও রনি উড এতে অংশ নেন।

গ্লোবাল সিটিজেন মুভমেন্ট ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) আট ঘণ্টার এই বৈশ্বিক আয়োজন করেছে। এতে সহযোগিতা করছেন সুপারস্টার লেডি গাগা।

যুক্তরাজ্যে স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭টা থেকে রাত সোয়া ৯টা পর্যন্ত ( বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত সোয়া ১টা থেকে সোয়া ৩টা) বিবিসি ওয়ান কনসার্টের চুম্বক অংশ তুলে ধরবে।