কলকাতায় একই মঞ্চে সম্মাননা পেলেন আনজাম মাসুদ ও পপি

image

গেল ৩১ মার্চ কলকাতা থেকে প্রগতি বাংলা অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হলেন উপস্থাপক আনজাম মাসুদ। এর আগে গত বছর একজন সফল উপস্থাপক হিসেবে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক সম্মাননায় ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। একই মঞ্চে একই সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। কলকাতার গ্যালারি গোল্ড অডিটরিয়ামে ৩১ মার্চ সন্ধ্যায় আনজাম মাসুদ ও পপির হাতে ‘প্রগতি বাংলা সম্মাননা’ তুলে দেয়া হয়। কলকাতার কোন সংগঠন কর্তৃক এবারই প্রথম কোন সম্মাননায় ভূষিত হলেন পপি। অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার পর মুঠোফোনে কলকাতা থেকে আনজাম মাসুদ বলেন, ‘শুরুতেই আমার পরিবারের কথাই বেশি মনে পড়ে। আমার প্রতিটি কাজে পরিবারের ভীষণ সাপোর্ট ছিল। আজ বাবা বেঁচে থাকলে সবচেয়ে বেশি খুশি হতেন। আমার এই প্রাপ্তিতে মাও ভীষণ খুশি হয়েছেন। এ পুরস্কার প্রাপ্তিতে আমার কাজে আরও দায়িত্বশীল হতে অনুপ্রেরণা দিচ্ছে। উপস্থাপনায় আমার সাফল্যের জন্য স্বীকৃতি পাওয়াকে আমার দেশেরই অর্জন বলে আমি মনে করি। আমি কৃতজ্ঞ আমার দেশের সব দর্শকের কাছে। আমি ভীষণ কৃতজ্ঞ আমার অনুষ্ঠানের সব শিল্পীর কাছে। তাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের কারণেই দীর্ঘ প্রায় এক যুগ ধরে আমি কাজ করে যেতে পারছি।’ সাদিকা পারভীন পপি বলেন, ‘যেকোন পুরস্কারই একজন মানুষকে অনেক অনেক অনপ্রেরণা জোগায়। আর দেশের বাইরে এসে স্বীকৃতি গ্রহণের বিষয়টা অনেক সম্মানের। আমার পরিবার, আমার চলচ্চিত্র পরিবার, আমার সব শ্রদ্ধেয় পরিচালক, প্রযোজক, সহশিল্পী, সাংবাদিকসহ অন্যান্য প্রত্যেকের কাছেই আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। কারণ সবার চেষ্টায়, সহযোগিতাতেই আমি আজকের পপি, যে পপি কলকাতাতেও সম্মানিত হলো দেশের একজন নিবেদিত সংস্কৃতি কর্মী হয়ে।’ এদিকে সোমবারই (১ এপ্রিল) আনজাম মাসুদ দেশে ফিরেছেন। কারণ আগামীকাল থেকেই বিটিভিতে প্রচার চলতি তারই গ্রন্থনা, পরিকল্পনা ও উপস্থাপনায় ‘পরিবর্তন’ শুটিং। এদিকে আগামী ৫ এপ্রিল পপি দেশে ফিরবেন। দেশে ফিরেই আগামী ৬ এপ্রিল থেকে সিলেটে ‘গার্ডেন গেম’ নামের একটি ওয়েব সিরিজের কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন।