নবীন-প্রবীণ শিল্পীর অংশগ্রহণে মুখর ‘অ্যাক্টর ফ্যামিলি ডে’

http://thesangbad.net/images/2020/February/09Feb20/news/upload2.jpg

‘অভিনয় শিল্পী সংঘ’ আয়োজিত এবং সংঘের সভাপতি শহীদুজ্জামান সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ‘অভিনয় শিল্পী সংঘের এ যাবতকালের সেরা অনুষ্ঠান হয়ে গেলো গত ৮ ফেব্রুয়ারি। বেলা ১১টায় জাতীয় স্মৃতি সৌধে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে ‘অভিনয় শিল্পী সংঘ’ আয়োজিত ‘অ্যাক্টরস ফ্যামিলি ডে’ উদযাপন শুরু হয় রাজধানীর আশুলিয়া সংলগ্ন বিরুলিয়া ব্রিজের নিকটস্থ প্রিয়াংকা পিকনিক স্পটে। শুরু থেকেই অভিনয় শিল্পীদের অনুষ্ঠানে উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। অনুষ্ঠানে জাদু প্রদর্শন করেন শাহীন শাহ। একইসঙ্গে মঞ্চে উঠেন একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা আবুল হায়াত ও চিত্রনায়ক, প্রযোজক, পরিচালক আলমগীর। আলমগীর মঞ্চে উঠে ‘আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য’ গানটি পরিবেশন করেন। তার গানে মুগ্ধ হন সবাই। এরপর একে একে সঙ্গীত পরিবেশন করেন চঞ্চল চৌধুরী, অপূর্বসহ অনেকে। মধ্যাহ্নভোজের বিরতি শেষে ২০১৭ ও ২০১৮ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নবীন প্রবীণদেরকে ‘অভিনয় শিল্পী সংঘ স্মারক সম্মাননা’ প্রদান করা হয়। সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন- চিত্রনায়ক আলমগীর, কাহিনীকার হারুন অর রশীদ, অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু, জাহিদ হাসান, তৌকীর আহমেদ, আফজাল শরীফ, সাহাদাত হোসেইন, রুনা খান। সদ্যঘোষিত একুশে পদকপ্রাপ্ত এস এম মোহসীন ও বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারপ্রাপ্ত খায়রুল আলম সবুজকেও সম্মাননায় ভূষিত করা হয়। সম্মাননা তুলে দেন আবুল হায়াত ও শর্মিলী আহমেদ। সম্মাননা অনুষ্ঠান শেষে সাজু খাদেম ও আরফান আহমেদের পরিকল্পনায় বিশেষ সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ফান অ্যাওয়ার্ড ‘অ্যাক্টরস ইকিউটি পুরস্কার’র আয়োজন করা হয়। সাজু খাদেম ও আরফান আহমেদ’র অনবদ্য উপস্থাপনা শুরুতেই সবাইকে মুগ্ধ করে। পুরস্কার বিতরণীর শুরুতেই যাবতজীবন সম্মাননা’ দেয়া হয় খলিলুর রহমান কাদেরী’কে। এরপর নানান ধরনের পুরস্কারে ভূষিত হন আহসান হাবিব নাসিম, আবদুল আজিজ, ফারজানা ছবি, নীলা ইসলাম, অনুভব, সিরাজুল ইসলামসহ অনেককে। মূলত এবারের সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানটিই ছিলো সবচেয়ে বেশি আকর্ষনীয়। সবার জীবনে প্রেম আসে’ গানটিতে শবনম পারভীন ও তারিক স্বপনের ভিন্নধরনের নৃত্য উপস্থিত সবাইকে মুগ্ধ করে। এছাড়াও ফারুক আহমেদ-অ্যানি, মুনিরা মিঠু-জামিলের নাচও ছিলো বেশ উপভোগ্য। সবশেষে ছিলো ‘জলের গান’র পরিবেশনা। অভিনয় শিল্পীরা নেচে গেয়ে ‘জলের গান’র পরিবেশনা উপভোগ করেন। সভাপতি শহীদুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘আমাদের সাধ্যের মধ্যে সর্বাত্মক চেষ্টা ছিলো যেন সবার অংশগ্রহনে অ্যাক্টরস ফ্যামিলি ডে যেন প্রাণবন্ত হয়ে উঠে। শিল্পীরা এসেছেন, সবার সঙ্গে সবার দেখা হয়েছে, সময়টা উপভোগ করেছেন, সবাই মজা করেছেন এটাই আমাদের প্রাপ্তি, ভালোলাগা। সার্বিকভাবে কেমন হয়েছে এটা শিল্পীরা ভালো বলতে পারবেন।’ আহসান হাবিব নাসিম বলেন, ‘ঢাকার বাইরে এবারই প্রথম আমাদের সংঘ’র এই ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলাম। সবার সহযোগিতায়, আন্তরিকতায় কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়া অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়েছে। সবাই অনুষ্ঠানে এসে সবধরনের আয়োজনই উপভোগ করেছেন। আগামীতে আমরা সবারই স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহন নিশ্চিত করবো। অভিনয় শিল্পী সংঘের পক্ষ থেকে সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ।’