পাঁচ বছর পর অভিনয়ে নাফিজা সঙ্গে সাব্বির মিলি

image

পাঁচ বছর পর দেশে ফিরেছেন অভিনেত্রী নাফিজা। দেশে ফিরে সঞ্জিত সরকারের পরিচালনায় ‘শেষ দেখার পরে’ শিরোনামের একটি খণ্ড নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। এই নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে আছেন মীর সাব্বির এবং ফারহানা মিলি। নাটকটি রচনা করেছেন পরিচালক নিজেই। নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে সঞ্জিত সরকার বলেন, ‘নওরীন ও শুভর বিয়ে হবে, এমনই ইচ্ছে তাদের দু’জনের মায়ের। কিন্তু হঠাৎ নওরীন দেশের বাইরে চলে যায়। নওরীনের কোন খবর না পেয়ে শুভ মিতাকে বিয়ে করে ফেলে। এক সময় ফিরে আসে নওরীন। এভাবেই এগিয়ে যায় গল্প।’ নাটকে নওরীন চরিত্রে নাফিজা, শুভ চরিত্রে মীর সাব্বির এবং মিতা চরিত্রে ফারহানা মিলি অভিনয় করেছেন। দীর্ঘদিন পর অভিনয় করা প্রসঙ্গে নাফিজা বলেন, ‘কিছুটা ভয় তো ছিলই। কারণ পাঁচ বছর পর ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলাম। তবে যেহেতু পরিচালকের সঙ্গে আগে কাজ হয়েছে। আবার সহশিল্পী ছিলেন সাব্বির ভাই, মিলি আপু। তাই সবকিছু কেন যেন আগেরই মতো

মনে হচ্ছিল। খুব অল্প সময়ের মধ্যে সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যায়। সত্যিই ভীষণ ভালো সময়ে কেটেছে শুটিং-এর দুটো দিন।’ মীর সাব্বির বলেন, ‘নাফিজাতো গত পাঁচ বছর ধরে অভিনয়ে নেই। কিন্তু তারপরও সে তার সহজাত অভিনয়ই করেছে। বাংলাদেশে সে অভিনয়ে নিয়মিত থাকলে তার অবস্থান আজ অনেক উপরে থাকতো। কারণ এখন যারা অভিনয় করছে তাদের অনেকের চেয়ে নাফিজা খুবই ভালো অভিনয় করে।’ ফারহানা মিলি বলেন, ‘সঞ্জিত দাদার ইউনিটে কাজ করতে আমি সব সময়ই বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। সাব্বির ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করাটা সব সময়ই বেশ ভালোলাগার। অনেকদিন পর নাফিজা অভিনয়ে ফেরায় ইউনিটেও একটা উচ্ছাস ছিলো।’ নির্মাতা সঞ্জিত সরকার জানান ‘শেষ দেখার পর’ নাটকটি আরটিভিতে শীঘ্রই প্রচার হবে। নাফিজা প্রথম নাটকে অভিনয় করেন মীর সাব্বিরের বিপরীতে সালাহ উদ্দিন লাভলুর নির্মাণে ‘হোমিও রোমিও’ নাটকে। ফারহানা মিলির সঙ্গে টিংকুর নির্দেশনায় একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছিলেন নাফিজা।