বিয়ে করলেন ইশানা

image

বিয়ে করলেন ছোটপর্দার অভিনেত্রী ইশানা খান। পাত্র অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী সারিফ চৌধুরী। সারিফ চৌধুরী ২০১৫ সাল থেকে অস্ট্রেলিয়ার ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক (এনবিএন)’এর নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করছেন। সারিফ চৌধুরী আবু সোলায়মান চৌধুরী ও নাইয়ার সুলতানার দ্বিতীয় সন্তান। সারিফের বাবা মন্ত্রী পরিষদ সচিব ছিলেন। কিছুদিন আগেই সারিফ দেশে আসেন। যদিওবা সারিফ ও ইশানার আগে থেকেই পরিচয় ছিল কিন্তু তারপরও দুই পরিবারের আয়োজনের মধ্যদিয়েই ইশানা ও সারিফের বিয়ের আনুষ্ঠানকিতা আপাতত ছোট্ট পরিসরেই সমাপ্ত হলো। গেল ১০ জুলাই বাদ আছর গুলশান আজাদ মসজিদে দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে সারিফ ও ইশানার আকদ সম্পন্ন হয়। পরে রাতে রাজধানীর বনানী ক্লাবে ঘরোয়া আয়োজনের মধ্যদিয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। তবে ইশানা জানান আগামী কয়েকমাস পর বড় পরিসরে তাদের দু’জনের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হবে। মেজ মেয়ে ইশানার সারিফের সঙ্গে বিয়ে হওয়াতে ইশানার বাবা মাহবুব আলম খান ও মা নীলিমা ইসলামও বেশ খুশি। ইশানার বড় বোন শাওন আমেরিকায় নেভিতে চাকরিরত। তার ছোট বোন ইয়ারাও মাঝে মাঝে অভিনয় করেন। হঠাৎ বিয়ে হওয়া প্রসঙ্গে ইশানা বলেন, ‘যেহেতু অনেকটাই হঠাৎ করেই এই বিয়ে হওয়া, তাই বিয়েকে ঘিরে অনেক ব্যস্ততা ছিল আমার। তারপরও আলহামদুলিল্লাহ বেশ ভালোভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

সারিফ বলেন, ‘ইশানাকে আমার জীবনে পেয়ে আমি খুব খুশি, আলহামদুলিল্লাহ। সুন্দরভাবে অল্প সময়ের মধ্যে সবকিছু সম্পন্ন হলো। আল্লাহর কাছে অসীম কৃতজ্ঞতা।’ সারিফ জানান আগামীকাল ১৩ জুলাই রাতের ফ্লাইটে ইশানাকে নিয়ে অষ্ট্রেলিয়ার সিডনীর উদ্দেশ্যে উড়াল দিবেন। সারিফ চৌধুরী ২০০৫ সাল থেকে মিডিয়াতে নিয়মিত কাজ করতেন। তার শুরুটা উপস্থাপনা দিয়ে। ২০০৯ সাল পর্যন্ত তিনি মিডিয়াতে কাজ করেছেন। তপু খানের নির্দেশনায় আরটিভিতে প্রচার চলতি ‘সময়ের গল্প তে সারিফ ও ইশানা প্রথম নাটকে অভিনয় করেন গেলো এপ্রিলে। এদিকে বিয়ের আগে ইশানা খান মোশাররফ করিমের বিপরীতে মারুফ মিঠুর নির্দেশনায় ‘সেইরকম বাকী খোর’ নাটকে অভিনয় করেন যা আগামী ঈদে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে।