শিল্পের ক্যানভাসে ব্যক্তিত্বের উন্মোচন

image

গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ১ ও ৬নং গ্যালারিতে ‘শেখ হাসিনা বাংলাদেশের স্বপ্নসারথি’ শিরোনামে এ আলোকচিত্র ও শিল্পকর্ম প্রদর্শনী চলছে। প্রদর্শনী শেষ হবে ১৫ নভেম্বর। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর অন্বেষণে, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির এ আয়োজনে, বাংলাদেশের বরেণ্য ৩৩ জন এবং তরুণ ১০ জন চিত্রশিল্পীর অংকনে, একঝাঁক ফটোগ্রাফারের ফটোগ্রাফিতে, চিত্র নির্মাতাদের ভিডিও ইনস্টেলেশনের মাধ্যমে ফুটে উঠেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈচিত্র্যপূর্ণ এবং বর্ণিল যাপিত জীবন। আলোকচিত্র তুলতে যেয়ে দৈনিক রূপালী পত্রিকার ফটো সাংবাদিক হয়ে কর্মজীবন শুরু করে ইয়াসিন কবীর জয়। দৈনিক জনকণ্ঠ, নিউজ ফটো এজেন্সি ফোকাস বাংলা প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানে কর্মক্ষেত্রের অবস্থানের বিবর্তন করলেও প্রধানমন্ত্রীর ছবি তোলার ক্ষেত্রে তিনি আজীবন নিমগ্ন ছিলেন। ফলে জীবনের প্রথম বেলা থেকে গভীর শ্রদ্ধা ও মুগ্ধতায় শেখ হাসিনার মিছিল, সভা-সমাবেশে ক্যামেরার ব্যাগ নিয়ে ছুটে চলতেন। ফলে তার তোলা ছবিগুলোতে নেত্রীর আনন্দ-বেদনা, উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা, প্রাপ্তি, অর্জন, প্রত্যাশা, বাস্তবায়ন প্রভৃতির মুহূর্ত ধরা আছে সহজ এবং সাবলীল ভাবে। ইতিহাসের পরম্পরা নির্মাণ এবং তুলে ধরায় তা অনন্য এবং অসাধারণ। সেই সঙ্গে ইয়াসিন কবির জয়ের পূর্বসূরি ও উত্তরসূরি ফটোগ্রাফারদের ফটোগ্রাফিও রয়েছে প্রদর্শনীতে। আলহাজ জহিরুল হক মোহাম্মদ আলম হয়ে হাসানুজ্জামান তরুন, সুমন দাসদের মতো ১৮ জন ফটোগ্রাফারের অসংখ্য ফটোগ্রাফিতে অসংখ্য দৃশ্য ফুটে উঠেছেন প্রধানমন্ত্রী। সমরজিৎ রায় চৌধুরী, বীরেন সোম, অলকেষ ঘোষদের মতো বরেণ্য চিত্রশিল্পীদের হয়ে আজকের জয়ন্ত সরকার জন, সুরভী, সুজন মাহাবুবদের মতো ৪৩ জন চিত্রশিল্পীদের প্রায় অর্ধশতাধিক চিত্রকর্মে এখানে উঠে এসেছে শেখ হাসিনার সংগ্রামী জীবনের আখ্যান। শৈশব-তারুণ্য, স্বদেশ, প্রত্যাবর্তন, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম, ভোট ও ভাতের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম, অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় অদম্য বাংলাদেশ, কূটনৈতিক সাফল্য ও স্বীকৃতি, মানবতার প্রতিকৃতি প্রভৃতি ভাবনায় অনন্য আলোয় উদ্ভাসিত শেখ হাসিনা যেমন ফটোগ্রাফিতে তেমনি পেইন্টিংয়ে। আছে ভিডিও ইনস্টেলেশনও, অভিজি চৌধুরীর সমন্বয়ে স্থাপনাশিল্পে গ্রেনেড হামলার ভয়াবহতা, ৩২ ফিট/৪৩ ফিট সাইজ বরেণ্য শিল্পীদের যৌথ অংকিত প্রতিকৃতি।

আয়োজন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী বলেন, ‘বাঙালির স্বপ্নসারথি, উন্নয়নের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংগ্রামী জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ের আলোকচিত্র ও তাকে কেন্দ্র করে সৃজিত চিত্রকর্ম নিয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি আয়োজন করেছে ব্যতিক্রমী এক শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর। প্রদর্শনীতে স্থান পাওয়া শিল্পকর্মগুলো প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকা- ও বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের শিল্পভাষ্যের উন্মোচন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালায় প্রদর্শনী শেষে পরবর্তীকালে ছবিগুলো নিয়ে জেলা পর্যায়েও প্রদর্শনীর আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে। প্রদর্শনীতে রইল সবার নিমন্ত্রণ।’