‘গরবিনী মা’ সম্মাননায় ভূষিত হচ্ছেন পপির মা

image

ষষ্ঠবারের মতো ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্ত্তীর উদ্যোগে আগামী ১২ মে আন্তর্জাতিক মা দিবস’-এ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘গরবিনী মা সম্মাননা’ প্রদান অনুষ্ঠান। এবারের অনুষ্ঠানে চিত্রনায়িকা পপির মা মিসেস আমির হোসেনকে ‘গরবিনী মা সম্মাননা’য় ভূষিত করা হচ্ছে। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে পপির বিশেষ অবদানের জন্য এবং অভিনয়ের স্বীকৃতি স্বরূপ তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ায় তার মাকে এ সম্মাননা দেয়া হচ্ছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ‘গরবিনী মা সম্মাননা’র উদ্যোক্তা রাজাধানীর মহাখালীতে অবস্থিত ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হসপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্ত্তী। তিনি জানান, আগামী ১২ মে সকাল ১১টায় রাজধানীর মহাখালীর রাওয়া কনভেনসন সেন্টারে ‘গরবিনী মা সম্মাননা’ প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হসপিটালের চেয়ারম্যান প্রীত চক্রবর্ত্তী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। ডা. আশীষ বলেন, ‘সত্যি বলতে কী সন্তান হিসেবে মায়ের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। মা সারাজীবন আমাদের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করেন। তাই বিশেষ একটি দিনে মায়ের সন্তানের সাফল্যকে বিবেচনা করে মা’দেরকে জীবদ্দশাতেই আমরা গরবিনী মা সম্মাননা দেয়ার চেষ্টা করি। কারণ একজন সন্তানের কৃতিত্বের মধ্যেই মা তার নিজের কৃতিত্ব খুঁজে পান। আমরা সেইসব সন্তানদের মাকেই গরবিনী মা সম্মাননা দিয়ে থাকি যাদের জন্য দেশ ও জাতি গর্বিত।’ মায়ের সম্মাননা প্রাপ্তি প্রসঙ্গে চিত্রনায়িকা পপি বলেন, ‘আমি আজকের যা কিছু তার পুরো কৃতিত্বই আমার মায়ের। আমার আজকের গড়ে উঠাতে মাকে অনুপ্রেরণা দিয়ে এগিয়ে যেতে সাহস যুগিয়েছেন আমার বাবা। নেপথ্যে মায়ের অক্লান্ত পরিশ্রমই আমার আজকের পপি হয়ে উঠা। মায়েদের সংগ্রামী জীবনের গল্পের কথা কেউ জানতে পারেনা। কিন্তু তারপরও আমার মায়ের সংগ্রামী জীবনকে মূল্যায়িত করে, আমার সফলতাকে বিবেচনা করে আমার মাকে গরবিনী মা সম্মাননা দেয়ার উদ্যোগকে আমি শ্রদ্ধা জানাই, ভালোবাসা জানাই। কৃতজ্ঞ ডাক্তার আশীষ ও সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীনের কাছে। কারণ তাদের সমন্বিত সিদ্ধান্তই এই সম্মাননা প্রাপ্তিতে আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে।’