ইরাকে নিহত ১৩

image

বাগদাদে সরকারবিরোধী সহিংস বিক্ষোভের একাংশ-রয়টার্স

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ-মিছিলে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে গত ২৪ ঘণ্টায় কমপক্ষে ১৩ জন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। গত সোমবার (৪ নভেম্বর) দিনের বেলায় বিক্ষোভ চলাকালে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ৮ জন বিক্ষোভকারীর মৃত্যুর পর ৫ নভেম্বর মঙ্গলবার ভোররাতের দিকে নিহত হয়েছে আরও ৫ জন। ২ নভেম্বর শনিবারের বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে এক বিক্ষোভকারী নিহত ও ৯১ জন আহত হওয়ার পর আন্দোলনে তীব্রতা বেড়েছে। আল-জাজিরা।

ইরাকে মাসখানেক ধরে চলমান এ সরকারবিরোধী বিক্ষোভের মধ্যেই ৩ নভেম্বর রোববার রাতে ঐতিহসিক কারবালার ইরানি কনস্যুলেটে হামলা চালানো হয়েছে। তবে এতে কমপক্ষে তিন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে বলে স্থানীয় নিরাপত্তা বাহিনী জানিয়েছে। রোববার রাতে কারবালায় ইরানি কনস্যুলেটে ডজনখানেক বিক্ষোভকারী এ হামলা চালায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিক্ষোভকারীরা কনস্যুলেট ভবনে উড্ডয়নরত ইরানি পতাকা নামিয়ে ফেলে সেখানে একটি ইরাকি পতাকা উড্ডয়ন করে দেয়। এ সময় তারা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে পাথর ও আগুন জ্বালানো টায়ার ছোড়ে।

জবাবে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে নিরাপত্তা বাহিনী গুলি ছুড়লে ওই তিন বিক্ষোভকারী নিহত হয়।

কর্মসংস্থান সংকট দূর করা, সরকারের দুর্নীতি বন্ধসহ সরকারি সেবার মান বাড়ানোর দাবিতে গত ১ অক্টোবর থেকে বাগদাদে মানুষের আন্দোলন-বিক্ষোভ তীব্র হচ্ছে। পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে এ পর্যন্ত আড়াইশ’র বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।