জব্দ করা ইরানি ট্যাংকার ছেড়ে দিয়েছে সৌদি

image

শেষ পর্যন্ত জব্দ করা ইরানি তেল ট্যাংকার ছেড়ে দিয়েছে সৌদি আরব। ২০ জুলাই শনিবার ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা তাসনিম-এর এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। পার্স টুডে, বিবিসি।

গত ৩০ এপ্রিল সৌদি ‘হ্যাপিনেস-১’ নামের তেল ট্যাংকারটি জব্দ করে। পারস্য উপসাগরে ট্যাংকারটিতে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিলে সৌদি নৌবাহিনী এটি জব্দ করে জেদ্দা বন্দরে নিয়ে যায়। ইরানের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পরও গত কয়েক মাস ধরে এটি ছেড়ে দিতে অপারগতা প্রকাশ করে রিয়াদ। তবে শেষ পর্যন্ত শনিবার দুটি টাগ বোটের সাহায্যে ট্যাংকারটি ইরানের উদ্দেশে যাত্রা করে। ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম পার্স টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি আরব বলপূর্বক ট্যাংকারটি আটকের পর এটির রক্ষণাবেক্ষণ ও মেরামত খরচ দাবি করে তেহরানের কাছ থেকে এক কোটি ডলারেরও বেশি অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক আইন লঙ্ঘনের দায়ে শুক্রবার তেহরান একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটকের একদিনের মাথায় ইরানি ট্যাংকারটি ছেড়ে দিল রিয়াদ। ১৯ জুলাই শুক্রবার রাতে ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইরানের হরমুজগানের বন্দর ও সামুদ্রিক যান চলাচল বিষয়ক সংস্থার অনুরোধে স্টেনা ইমরো নামের একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাংকার আটক করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক আইনের প্রতি সম্মান না দেখানোয় ইরানের ওই সংস্থা তেল ট্যাংকারটিকে আটকের অনুরোধ জানায়। ট্যাংকারটি উপকূলে আনা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া চলছে। এটিতে তল্লাশি চালানো হবে। মূলত এরপরই জব্দকৃত ইরানি ট্যাংকারটি ছেড়ে দিতে উদ্যোগী হয় রিয়াদ।