মার্কিন অভিযানে আইএসপ্রধান বাগদাদি ‘নিহত’!

image

ইরাকে জন্ম নেয়া ইসলামপন্থি জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রধান নেতা আবু বকর আল বাগদাদি সম্ভবত মারা গেছেন। মার্কিন সাপ্তাহিক ‘নিউজউইক’-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমন দাবি করা হয়েছে। এদিকে দেশটির আরেক সংবাদমাধ্যম ‘ফক্স নিউজ’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন সেনাদের অভিযানে শেষ পর্যন্ত ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ ওই জঙ্গি নেতা নিহত হয়েছে। পরে ট্রাম্প প্রশাসনের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা ওই সূত্রের দাবিকে স্বীকার করেছেন বলে প্রতিবেদনটির বরাতে জানা গেছে।

বিশ্বজুড়ে ত্রাস চালানো মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক এ জঙ্গিগোষ্ঠীর শীর্ষ নেতা বাগদাদিকে লক্ষ্য করে উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ায় বিশেষ অভিযান চালিয়েছে মার্কিন সামরিক বাহিনী। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রায় এক সপ্তাহ আগে এ অভিযানটির অনুমতি দেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। শনিবার মার্কিন সামরিক হেলিকপ্টারগুলো সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশের উপর উড়ছে এ প্রতিবেদন পাওয়ার পর।

এ অভিযানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং এ ঘটনার বিষয়ে অবহিত মার্কিন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা নিউজউইককে জানিয়েছেন, অতি গোপনীয় ওই অভিযানের লক্ষ্যবস্তু ছিলেন বাগদাদি। সিরিয়ার ইসলামপন্থি বিদ্রোহীদের দখলকৃত শেষ প্রদেশ ইদলিবে অভিযানটি চালানো হয় বলে জানিয়েছেন তারা। তুরস্ক সীমান্তের কাছে ব্রিশা গ্রামে চালানো অভিযানটিতে হেলিকপ্টার যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি স্থল বাহিনীও ছিল।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় সিরিয়ার ওই ইসলাপন্থি বিদ্রোহীদের সঙ্গে আইএসের সংঘর্ষ বাধে। অভিযানের ফল সম্পর্কে অবগত মার্কিন সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা নিউজইউককে জানান, অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছেন।

অন্যদিকে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রেসিডেন্টের দফতর হোয়াইট হাউসকে জানিয়েছে, অভিযানে যে শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃত্ব নিহত হয়েছে, সে বাগদাদি-এ বিষয়ে তাদের ‘দৃঢ় বিশ্বাস’ আছে। কিন্তু ডিএনএ ও বায়োমেট্রিক পরীক্ষা করে আরও যাচাই করার পর বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত করা যাবে।

পেন্টাগনের ওই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, মার্কিন বাহিনী একটি কম্পাউন্ডে প্রবেশ করার পর ছোট ধরনের বন্দুক লড়াই হয়। এ সময় বাগদাদি আত্মঘাতী ভেস্টের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে হত্যা করেন।

ওই কম্পাউন্ডে বাগদাদির পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন বলে পেন্টাগনের সূত্রগুলো নিউজউইককে জানিয়েছে। অভিযানে বাগদাদির কোন সন্তান আঘাত না পেলেও তার দুই স্ত্রী নিহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তারা। দুই স্ত্রী সম্ভবত বাগদাদির আত্মঘাতী ভেস্টের বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন বলে ধারণা পেন্টাগনের ওই সূত্রগুলোর।

অভিযানটির বিষয়ে জ্ঞাত সূত্রগুলোর ভাষ্য মতে, নির্ভরযোগ্য গোয়েন্দা সূত্রে খবর পাওয়ার পর মার্কিন জয়েন্ট স্পেশাল অপারেশন্স কমান্ডের ডেল্টা টিম শনিবারের শীর্ষ পর্যায়ের অভিযানটি চালায়। বিশেষ অভিযানের সেনারা যে জায়গায় অভিযান চালিয়েছে, কিছুদিন ধরেই তা নজরদারির মধ্যে ছিল।

শনিবার রাতে অভিযানটি শেষ হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘এই মাত্র বিরাট কিছু একটা ঘটল!’ পরে এক ঘোষণায় হোয়াইট হাউস জানায়, রোববার ওয়াশিংটনের স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় প্রেসিডেন্ট ‘গুরুত্বপূর্ণ বিবৃতি’ দেবেন।

বাগদাদির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করল তেহরান

সিরিয়ায় মার্কিন সামরিক অভিযানে আইএসের নেতা আবু বকর আল বাগদাদি নিহত হয়েছেন- এমন বিশ্বাস করা হচ্ছে বলে রোববার (২৭ অক্টোবর) সিরিয়া, ইরাক ও ইরানের সূত্রগুলোও বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের শীর্ষ নেতা আবু বকর আল বাগদাদির মৃত্যুর খবর ইরান পেয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। সিরিয়ার বিভিন্ন সূত্র এ খবর দিয়েছে বলে জানান তারা। তেহরান যে আইএস নেতা বাগদাদির নিহত হওয়ার খবর পেয়েছে, দুই ইরানি কর্মকর্তা তা নিশ্চিত করেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থাটি। এক ইরানি কর্মকর্তা বলেন, ঘটনাস্থল থেকে খবর পাওয়া সিরিয়ার কর্মকর্তাদের কাছ থেকে বাগদাদির মৃত্যুর বিষয়টি ইরান জানতে পেরেছে। দেশটির আরেক কর্মকর্তাও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মার্কিন অভিযানে বাগদাদির নিহত হওয়ার গুঞ্জনের মধ্যেই তেহরানের দিক থেকে এ বক্তব্য জানা গেল। এর আগে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে এক মার্কিন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, রাতে চালানো অভিযানটিতে বাগাদাদিই লক্ষ্য ছিলেন। কিন্তু অভিযানটি সফল হয়েছে কি না, তা বলতে পারেননি তিনি। সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশ থেকে এক জঙ্গি উপ-দলের কমান্ডার রয়টার্সকে জানিয়েছে, শনিবার মধ্যরাতের পর চালানো এক অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে বিশ্বাস করা হচ্ছে। তুরস্ক সীমান্তের কাছে ব্রিশা গ্রামে চালানো অভিযানটিতে হেলিকপ্টার, যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি স্থল বাহিনীও ছিল এবং তারা সংঘর্ষে জড়িয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি। ইরাকের দুই নিরাপত্তা সূত্র ও দুই ইরানি কর্মকর্তা জানান, বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে সিরিয়ার ভেতর থেকে নিশ্চিত খবর পেয়েছেন তারা। তাদের মধ্যে ইরানি এক কর্মকর্তা বলেন, বাগদাদির নিহত হওয়ার খবর ইরানকে অবহিত করেছেন সিরিয়ার কর্মকর্তারা। তারা ঘটনাস্থল থেকে খবরটি পেয়েছেন।