সংবাদমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করছে মোদি সরকার!

image

ভারতে ৩টি শীর্ষস্থানীয় পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধ রেখেছে মোদি সরকার। সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনামূলক প্রতিবেদন প্রকাশের জেরে টাইমস গ্রুপ, এবিপি গ্রুপ এবং দ্য হিন্দু-তে নির্বাচনের আগে থেকেই সরকারি বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধ রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্টদের।

দেশটির টাইমস গ্রুপের ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’ ইংরেজি ভাষায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি প্রচারিত দৈনিক। ‘দ্য ইকোনমিক টাইমস’ নামে আরেকটি জনপ্রিয় পত্রিকাও রয়েছে তাদের। টাইমস গ্রুপের ১৫ শতাংশ বিজ্ঞাপন সরকারি খাত থেকে আসত। তবে এ বিজ্ঞাপন বন্ধ করে রাখা হয়েছে। ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ পত্রিকার প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান এবিপি গ্রুপের দুজন কর্মকর্তা জানান, তাদের পত্রিকায় জাতীয় নিরাপত্তা ও বেকারত্ব নিয়ে কয়েকটি পরিসংখ্যান প্রকাশ হয়েছিল। যেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের নীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। এরপর গত ৬ মাস ধরে আমাদের ১৫ শতাংশ সরকারি বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধ রেখেছে সরকার।

দেশটির অপর সংবাদমাধ্যম ‘দ্য হিন্দু’ও কয়েক মাস ধরে সরকারি বিজ্ঞাপন পাচ্ছে না। গত ফেব্রুয়ারিতে ভারত-ফ্রান্সের মধ্যে রাফাল যুদ্ধবিমান ক্রয় চুক্তিতে অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে পত্রিকাটি। এমন খবর প্রকাশ করায় পত্রিকাটির ওপর অসন্তুষ্ট হয়েছে সরকার। এ নিয়ে দেশটির অন্যতম প্রধান দল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসসহ অন্যসব বিরোধী রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে সরকারের সমালোচনা করা হয়েছে। তাদের দাবি, ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে নরেন্দ্র মোদি স্বাধীন সাংবাদিকতার বিষয়ে ব্যাপক হস্তক্ষেপ করছেন।