সাংবাদিক গ্যালিজিয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী শনাক্ত

image

মাল্টায় দুর্নীতিবিরোধী অনুসন্ধানী সাংবাদিক দেফনি কারুয়ানা গ্যালিজিয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে তিন জনকে শনাক্ত করেছে তদন্তকারীরা। তারা তিনজনই মাল্টার নাগরিক। রোববার (১৮ নভেম্বর) সানডে টাইমস অব মাল্টার প্রতিবেদনে এ দাবি করা হয়েছে। পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারি নিয়ে প্রতিবেদনের জন্য ইউরোপের সবচেয়ে ক্ষুদ্র এ দেশটির শাসক গোষ্ঠী এবং মাফিয়া চক্র, দু’পক্ষেরই পথের কাটা হয়ে উঠেছিলেন গ্যালিজিয়া। হত্যাকাণ্ডের ১৫ দিন আগে পুলিশকে প্রাণনাশের হুমকি পাওয়ার কথা জানান তিনি। গত বছরের ১৬ অক্টোবরে মাল্টায় নিজ বাড়ির অদূরে গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহত হন ৫৩ বছর বয়সী সাংবাদিক গ্যালিজিয়া। তিনি ব্লগ লিখে ‘ওয়ান ওম্যান উইকিলিকস’ খ্যাতি পান।

বলা হয়, মাল্টার সব পত্রিকা মিলিয়ে যত কপি বিক্রি হয়, তার চেয়ে বেশি গালিজিয়ার ব্লগ পড়ে থাকে মানুষ। হত্যাকাণ্ডের প্রায় ১৩ মাস পর হত্যা পরিকল্পনার সঙ্গে জড়িত এ তিনজনের কথা জানা গেল। সানডে টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয় তিনজনের কথা বলা হলেও তাদের নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে এ হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নিয়োজিত উচ্চ পর্যায়ের এক কর্মকর্তা জানান, এ তদন্তে খুবই অগ্রগতি হয়েছে। তবে এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের পক্ষ থেকে মাল্টার পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। গ্যালিজিয়া হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এর আগেও তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা এখনও বন্দী রয়েছে। তবে গ্রেফতারকৃতরা নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করেছেন।

এক শুনানিতে এ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্যালিজিয়ার গাড়িতে বোমা লাগানোর প্রাথমিক প্রমাণ আদালতে হাজির করেছে কর্তৃপক্ষ। তারা একটি এসএমএসের মাধ্যমে ওই বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল বলে দাবি পুলিশের। গ্যালিজিয়াকে হত্যার কারণ এখনও জানা যায়নি।