আইএসপিএবি নির্বাচনে ‘টিম ইউনাইটেড’ জয়ী

image

ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন ইন্টারনেট সার্ভিসেস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (আইএসপিএবি) কার্যকরী কমিটির ২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচনে পূর্ণ প্যানেলে জয়ী হয়েছে টিম ইউনাইটেড। শনিবার ২৬ অক্টোবর ঢাকার গুলশানের ইমানুয়েল কনভেনশন হলে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে সাধারণ ক্যাটাগরিতে দু’টি প্যানেলে ৯ পদের বিপরীতে ১৭ এবং সহযোগী ক্যাটাগরিতে ৪ পদের বিপরীতে দু’টি প্যানেলে ৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সাধারণ ক্যাটাগরিতে ভোটার ছিলো ১১৪ জন এবং সহযোগী ক্যাটাগরিতে ৩১৭ জন। সাধারণ ক্যাটাগরিতে টিম ক্যাটালিস্ট বনাম টিম ইউনাইটেড এবং সহযোগী ক্যাটাগরিতে মুখোমুখি হয় দ্য এ টিম ও ক্যাটাগরি ঐক্য পরিষদ।

সাধারণ ক্যাটাগরিতে টিম ইউনাইটেডের ইমদাদুল হক পেয়েছেন ১০১ ভোট। আমিনুল হাকিম ৯৫, আহমেদ জুনায়েদ ৯১, মইনুদ্দিন আহমেদ ৮৬, নাজমুল করিম ভূঁইয়া ৮৪, রাশেদ আমিন ৮১, সরোয়ার আলম শিকদার ৭৮, আনোয়ারুল আজিম ৭৭ ও কামাল হোসেন ৭৬ ভোট পেয়েছেন। সহযোগী ক্যাটাগরিতে রাইসুল ইসলাম তুহিন ১৮২, আসাদুজ্জামান সুজন ১৮১, নাসির উদ্দিন ১৭৪, ওহিদুল্লাহ ভূঁইয়া ১৫৫ ভোট পেয়েছেন।

সাধারন ক্যাটেগরিতে নয় সদস্যের দল নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল টিম ইউনাইটেড। সেখানে পুরো প্যানেলই জয়লাভ করেছে। নির্বাচনে সাধারন ক্যাটেগরিতে সর্বো” ভোট পাওয়া টিম ইউনাইটেডের ইমদাদুল হক জানান, সহযোগী পদে যারা বিজয়ী হয়েছেন তারাও টিম ইউনাইটেডের সমর্থন পুষ্ট। তিনি বলেন, নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও আমরা সবাইকে নিয়েই এই খাতের উন্নয়নে কাজ করবো।

নির্বাচনে সাধারণ ক্যাটেগরিতে ভোটার ছিলো ১১৪ এবং সহযোগী ক্যাটেগরিতে ভোটার ছিলো ৩১৭ জন। এর মধ্যে সাধারণ ক্যাটাগরিতে ভোট পড়েছে ১১৩টি এবং সহযোগী ক্যাটাগরিতে ভোট পড়েছে ৩০৬টি।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার নির্বাচন চলাকলীন সময়ে ভোট পরিদর্শন করে বলেন, এমন সোহাদ্যপূর্ণ নির্বাচন ডিজিটাল প্রযুক্তি পরিবারে নিজেদের মধ্যে বন্ধুত্বের বন্ধন আরও সুদৃঢ় করবে।

আইএসপিএবি’র এ নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। নির্বাচন কমিশনের অন্য দুই জন সদস্য ছিলেন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ কলসেন্টার এন্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) এর সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন ও এক্সেল টেকনোলজিস লিমিটেডের পরিচালক বীরেন্দ্র নাথ অধিকারী।