২৮-২৯ ফেব্রুয়ারী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিস নিয়ে ন্যাশনাল হ্যাকাথন

image

দেশের বিভিন্ন জন গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাসমূহ চিহ্নিত করে সেগুলোর সমাধানে তথ্য-প্রযুক্তি ভিত্তিক ইনোভেটিভ সমাধান খুঁজে বের করার লক্ষ্যে আয়োজিত হচ্ছে “ন্যাশনাল হ্যাকাথন অন ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিস”। “ÒThink. Hack. Solve.” স্লোগানকে সামনে রেখে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এর অধীনে “উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প” বা স্টার্টআপ বাংলাদেশ-রউঊঅ এর উদ্যোগে “বাংলাদেশে অবস্থিত ভারতীয় হাই কমিশন” ও “টেক মাহিন্দ্রা লিমিটেড” এর সহযোগিতায় আগামী ২৮-২৯ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এই হ্যাকাথন।

এই হ্যাকাথনের উদ্দেশ্য হল উদীয়মান উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগ সহযোগিতা, বৈদেশিক পরিবেশে প্রশিক্ষণ ও মেনটরিং প্রদান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দেশীয় উদ্ভাবনের প্রচার ও প্রসার করার পাশাপাশি বিশ্বের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমের সাথে বাংলাদেশকে সংযুক্ত করে বৈদেশিক বিনিয়োগকে উৎসাহিত করাও এর অন্যতম লক্ষ্য। ১৮ বছর বা এর উর্ধ্বে যে কেউ এ হ্যাকাথনে আবেদন করতে পারবেন। একটি দলে সর্বোচ্চ ৩ জন থাকতে পারবেন অথবা আগ্রহী ব্যক্তি এককভাবে অংশ নিতে পারবেন।

অংশগ্রহণকারীদের উদ্ভাবনী সমাধানগুলোকে নিয়ে হবে চূড়ান্ত হ্যাকাথন। সারাদেশ থেকে নির্বাচিত ৫০টি দল মূল হ্যাকাথনে অংশ নিবে যাদের মেনটরিং করবে ৫০ জন মেনটরের সমন্বয়ে গঠিত একটি দক্ষ টিম। সেখান থেকে সেরা ১০টি ইনোভেশনকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হবে। বিজয়ী ১০টি টিমকে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান “টেক মাহিন্দ্রা লিমিটেড” মেকারস ল্যাবে গবেষণা ও প্রযুক্তি সহয়তাসহ মেনটরিং ও প্রশিক্ষন প্রদান করা হবে। একই সাথে উদ্ভাবনী প্রকল্পটি ম্যাচিউর করার জন্য প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ করা হবে।

সারাদেশ থেকে আগ্রহীগণ অনলাইনে নিবন্ধনের মাধ্যমে এই হ্যাকাথনে অংশ নিতে পারবেন। এছাড়া ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত হচ্ছে বিভাগীয় ক্যাম্পেইন। ইতোমধ্যে রংপুর বিভাগে ৮ জানুয়ারি হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় ক্যাম্পেইন। ক্যাম্পেইনে রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রায় ৩ শতাধিক তরুণ অংশগ্রহণ করে। হ্যাকাথনের পরবর্তী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পেইনসমূহের সময়সূচি নিয়মিতভাবে ওয়েবসাইট ও ফেইসবুক পেইজে শেয়ার করা হবে বলে জানান আইসিটি ডিভিশনের স্টার্টআপ বাংলাদেশ- iDEA প্রকল্পের কমিউনিকেশন কনসালটেন্ট সোহাগ চন্দ্র দাস। দেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন বিভাগ ও দপ্তর থেকে প্রাপ্ত সমস্যাসমূহ থেকে ১০টি জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যা (চ্যালেঞ্জ) চিহ্নিত করা হয়েছে। হ্যাকাথনের চ্যালেঞ্জগুলোর সমাধানে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিসগুলোর মধ্যে Artificial Intelligence, Blockchain, Big Data, Internet of Things, Machine Learning, Robotics ব্যবহার করা যেতে পারে। অনলাইনে নিবন্ধন ও বিস্তারিত তথ্য পেতে ভিজিট করতে হবে www.startupbangladesh.gov.bd এবং https://www.facebook.com/LetsStartupBD/। হ্যাকাথনে অংশগ্রহণের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ ৩১ জানুয়ারি।

প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) সৈয়দ মজিবুল হক বলেন, একটি জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ জাতি গঠনে তরুণদের এগিয়ে আসার বিকল্প নেই। আবেদনের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সকলকে এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করে নিজেদের উদ্ভাবনী শক্তির ব্যবহার এবং দেশের স্টার্টআপ সংস্কৃতি আরও এগিয়ে নিতে সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।

হ্যাকাথনের ১০টি চ্যালেঞ্জ হলোঃ ১. গুজব প্রতিরোধে সমন্বিত ব্যবস্থা প্রবর্তন, ২. পল্লী সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর মনিটরিং এর জন্য একটি ইফেক্টিভ টুল তৈরি, ৩. একটি কার্যকর ও আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির প্রবর্তন, ৪. নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখতে “ইন্টিগ্রেটেড মার্কেট ইন্টেলিজেন্স প্ল্যাটফর্ম” তৈরি, ৫. যথাযথভাবে খাদ্যশস্য সংরক্ষণে স্মার্ট ওয়্যারহাউস (এলএসডি/সিএসডি/সাইলো), ৬. অনুমোদিত বিল্ডিং কোড অনুযায়ী স্থাপনা তৈরিতে রিয়েল টাইম ইমারত নির্মাণ পরিবীক্ষণ ব্যবস্থা প্রবর্তন, ৭. পেশাগত নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণে যথাযথ ব্যবস্থা প্রবর্তন, ৮. রেল দুর্ঘটনা রোধে ‘ক্যাব সিগন্যালিং’ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন, ৯. নৌ-দুর্ঘটনা রোধে আধুনিক নৌযান সিগন্যালিং/ ট্রাকিং পদ্ধতি চালুকরণ এবং ১০. সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ‘ড্রাইভিং লাইসেন্স’এবং ‘মোটরযান ফিটনেস সার্টিফিকেট’ প্রদান ব্যবস্থার আধুনিকায়ন।

ইন্টারনেটকে জরুরী সেবা ঘোষনার পরও হয়রানি ও টিকে থাকার ঝুঁকি

image

করোনার প্রভাব মোকাবেলায় প্রযুক্তির ব্যবহার বিষয়ে পলকের ভিডিও কনফারেন্স

image

২০২০-২২ মেয়াদে বিসিএস সভাপতি শাহিদ-উল-মুনীর মহাসচিব মনিরুল ইসলাম

image

১৪ মার্চ বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির নির্বাচন

image

ই-গভর্নমেন্ট ইআরপি প্রকল্পের ইনভেন্টরি মডিউলের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম উদ্বোধন

image

আইইডিসিআর এর হটলাইন নম্বরে বাংলালিংক গ্রাহকদের ফ্রি কল করার সুযোগ

image

ভিশনস্প্রিং এর ক্লিয়ার ভিশন ওয়ার্কপ্লেস (সিভিডব্লিউ) প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত

image

১৫তম বছর পূর্ণ করলো ইমপ্যাক্ট পিআর

image

তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা-১০ আসন তথা দেশের উন্নয়ন করতে চাইঃ শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন

image