ঈদের আগেই নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ : দাবি সাংবাদিক নেতাদের

image

ঈদের আগে ৯ম ওয়েজবোর্ডের রোয়েদাদের গেজেট প্রকাশের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)সহ ১০ সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।

৯ম ওয়েজবোর্ডের রোয়েদাদের গেজেট প্রকাশের প্রাক্কালে নোয়াবের রিট আবেদনের ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করে বুধবার (৭ আগস্ট) একযৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, যখন সাংবাদিক সমাজ ৯ম ওয়েজবোর্ডের গেজেটের অপেক্ষায় তখন গোপনে হাইকোর্টে গিয়ে একটি মীমাংসিত বিষয়কে বিলম্বিত করার জন্য নোয়াব এই কাপুরুষোচিত কাজ করেছে।

এ দিকে নোয়াবের রিটের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করেছে বিএফইউজে। একই সঙ্গে সারাদেশে অঙ্গ ইউনিয়নগুলোও বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বলে বিবৃতিতে বলা হয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নোয়াবের এ ধরনের হঠকারী পদক্ষেপ সংবাদপত্র শিল্পে চরম নৈরাজ্যের সৃষ্টি করবে। যা মালিক ও সাংবাদিকদের মধ্যে বিভেদের দেয়াল তৈরি করবে। এর সূত্র ধরে পুরো সংবাদপত্র শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’ বিবৃতিতে নেতারা বলেন, ৯ম ওয়েজবোর্ড সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভাপতি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বিষয়টির নিষ্পত্তি হওয়ার পরও নোয়াবের হাইকোর্টে রিট করা উদ্দেশ্যমূলক। তারা বলেন, সেই বৈঠকে নোয়াবের সভাপতি ও প্রথম আলোর সম্পাদক-প্রকাশক মতিউর রহমান এবং সহ-সভাপতি ও সমকালের প্রকাশক একে আজাদ উপস্থিত ছিলেন। তারপরও এ ধরনের রিট করে নৈরাজ্য সৃষ্টির অপচেষ্টা দুই পক্ষের মধ্যে আস্থার সংকট তৈরি করবে।

বিবৃতিতে বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মজিদ, ডিইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খন্দকার মোজাম্মেল হক ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাঈনুদ্দিন দুলাল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হুমায়ুন কবীর, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নেয়ামুল হোসেন কচি, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাজেদ রহমান বকুল, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রুবেল, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আমজাদ হোসেন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক জিএম রউফ, ময়মনসিংহ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আতাউল করীম খোকন, সাধারণ সম্পাদক মীর গোলাম মোস্তফা, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাজী শাহেদ, সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের, সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল, নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন পন্টি, কুষ্টিয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মিলন উল্লাহ সাক্ষর করেছেন।