ই-নামজারি আরও বেগবান করতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের পত্র জারি

image

সহকারী কমিশনারদের (ভূমি) প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করে মাঠ পর্যায়ে শতভাগ ই-নামজারি কার্যক্রমকে বেগবান ও তরান্বিত করতে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের অনুরোধ জানিয়ে একটি পত্র জারি করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়। ২৮ অক্টোবর সোমবার জারি করা ওই পত্রে ই-নামজারি কার্যক্রমকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ ও মূল্যায়নসহ তরান্বিত করতে এ পত্রে মাঠ পর্যায়ের দপ্তরগুলোকে তাগাদা দেওয়া হয়েছে। ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর অঙ্গীকার অনুযায়ি চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে সারাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে ই-নামজারি কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। বর্তমানে ৪৮৫টি উপজেলা ভূমি অফিস ও সার্কেল অফিসে এবং ৩ হাজার ৬ শ’ ১৭ টি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ই-নামজারি কার্যক্রম চলছে। ই-নামজারি কার্যক্রমের মাধ্যমে ইতোমধ্যে ১ কোটিরও বেশী নাগরিককে সেবা প্রদান করা হয়েছে। ই-নামজারি সিস্টেম সকলের জন্য ব্যবহার উপযোগি করা হয়েছে। ভূমি অফিসের কর্মকর্তাদের সম্পাদিত কাজের মূল্যায়ন করার সুযোগও রাখা হয়েছে। এছাড়া, ১৬১২২ হটলাইনে কল করে সহজেই সেবা প্রার্থীরা ভূমি বিষয়ক বিভিন্ন সমস্যার সমাধান পেতে পারেন। ভূমি সেবা হটলাইন ১৬১২২ সরাসরি ভূমি মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণ করছে এবং অভিযোগগুলো ভূমিমন্ত্রী ও ভূমি সচিব পর্যবেক্ষণ করছেন।

উল্লেখ্য,প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’র আওতায় স্থাপিত হয়েছে ই-নামজারি ব্যবস্থা। ভূমি মন্ত্রণালয়, ভূমি সংস্কার বোর্ড এবং এটুআই যৌথভাবে মাঠ পর্যায়ে ই-নামজারি কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে।