ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রনে কোলকাতার অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান মেয়র আতিক

image

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে কোলকাতার অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। সোমবার (৫ আগস্ট) গুলশানস্থ নগর ভবনে এক ভিডিও কনফারেন্সে কোলকাতার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষের কাছ থেকে ডেঙ্গুর বিষয়ে নানা পরামর্শ নেন তিনি।

কোলকাতা পৌরসভা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ ডেঙ্গু প্রতিরোধে কীটনাশক প্রয়োগের চেয়ে এডিস মশার উৎপত্তিস্থল ধ্বংসের প্রতি গুরুত্ব দেন। তিনি বলেন, কোলকাতা পৌরসভা ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণকে প্রতিরোধ ও প্রতিকার - এই দুটি ভাগে বিভক্ত করেছেন’ কোলকাতা পৌরসভা ২০০৯ সাল থেকে ডেঙ্গু রোগ নিয়ন্ত্রণে তিন স্তর বিশিষ্ট মনিটরিং চালিয়ে যাচ্ছেন। ওয়ার্ড, বরো ও হেড কোয়ার্টার পর্যায়ে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ করা হয়। কোলকাতায় সারা বছর ধরে ডেঙ্গুর প্রতিরোধে মনিটরিং এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় বলে তিনি জানান।

‘মশারে করো উৎসে বিনাশ’ এই স্লোগান নিয়ে বাসা-বাড়ি কিংবা উন্মুক্ত জলাশয় যেখানেই এডিস মশার প্রজননস্থল পাওয়া যায় তা ধ্বংস করা হয়। ঢাকার কোন কোন এলাকা ডেঙ্গুর প্রবণ অতীন ঘোষ তা চিহ্নিত করে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দেন কোলকাতার ডেপুটি মেয়র। তিনি বলেন, প্রয়োজনভিত্তিক কৌশলী হতে হবে। তিনি আরো বলেন, কোলকাতা পৌরসভা নয় বছর যাবৎ অবকাঠামোভিত্তিক লড়াই চালিয়ে আজকের অবস্থানে এসেছে। একই সাথে ডেঙ্গুর প্রতিরোধে তিনি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা এবং রাজনৈতিক সদিচ্ছার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

তিনি আরও জানান, কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে ফগার মেশিনের সাহায্যে ধোঁয়া প্রয়োগ কার্যকরী হলেও এডিস মশা দমনে এর কার্যকারিতা কম। এডিস মশা দমনে উৎসে নির্মূল করা এবং জনসচেতনতা তৈরি করার বিকল্প নেই। কোলকাতার ডেপুটি মেয়র বলেন, ডেঙ্গুর প্রতিরোধের লক্ষ্যে আইন পরিবর্ধন করে শাস্তির পরিমান বাড়ানো হয়েছে। ফলে মানুষ আগের চেয়ে অনেক সচেতন। এসময় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম কোলকাতার ডেপুটি মেয়রকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আজকের এই কনফারেন্স থেকে আমাদের অনেক ‘নলেজ শেয়ারিং’ হলো। কোলকাতার অভিজ্ঞতা আমরা কাজে লাগাতে পারবো। কোলকাতার সাথে এ ধরণের ‘নলেজ শেয়ারিং’ এটি প্রথম হলেও শেষ নয়। ভবিষ্যতে দুই শহরের যোগাযোগ অব্যাহত থাকবে।

ভিডিও কনফারেন্সে অন্যান্যের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মো. খলিলুর রহমান, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল হাই, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক কবিরুল বাশার, কীটতত্ত্ববিদ ড. মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী, কলকাতা পৌরসভার চিফ ভেক্টর কন্ট্রোল অফিসার ডা. দেবাশীষ বিশ্বাস, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মনিরুল ইসলাম, উপ-প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সুব্রত রায় চৌধুরী, স্বাস্থ্য বিষয়ক মূখ্য পরামর্শক ডা. তপন মুখার্জী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, রোববার সন্ধ্যায় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম রাজধানীর মিরপুরে জামিউল উলুম মাদ্রাসা ও মসজিদ কমপ্লেক্সে খতিব, ইমাম, আলেমগণ ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের সাথে এডিস মশানিধন ও ডেঙ্গুর সচেতনতা বিষয়ে এক আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। জামিউল উলুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মো. আবুল বাশার নোমানীর সভাপতিত্বে সভায় শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, কারিগরী ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মুনশী সাহাবুদ্দীন আহমেদ, ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জয়নুল বারী, ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান প্রমুখ বক্তব্য দেন। মেয়র বলেন, বর্তমানে এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গুর রোগের ভয়বহতা থেকে রক্ষা পেতে মুসল্লিদের সচেতনতা বৃদ্ধি জরুরি। এ লক্ষ্যে তিনি মসজিদে বয়ানের মাধ্যমে ইমামগণ মুসল্লিদের মাঝে নিজ-নিজ বাসা-বাড়ি, আঙ্গিনা, এলাকার ছোট-ছোট জলাধার নিয়মিত পরিচ্ছন্নতার তাগিদ দেন। মেয়র মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদেরকে ডেঙ্গুর মশার বিভিন্ন প্রজননস্থল যেমন গাড়ির অব্যবহৃত টায়ার, আইসক্রিমের কাপ, ডাবের খোসা, ছোট পট, পরিত্যক্ত কন্টেইনার ইত্যাদিতে জমে থাকা পানি নষ্ট করে ফেলার পরামর্শ দেন।

শুধু গণমাধ্যমেই প্রকাশিত নারী-শিশু নিপীড়নের ঘটনায় সমাজ শঙ্কিত : প্রকৃত মাত্রা আরও ভয়াবহ

image

বিনামূল্যের পাঠ্যবই মুদ্রণে অনিয়ম ও প্রতারণা

image

৪৮ বছর পর সীমান্ত পিলারে পাকিস্তান মুছে বাংলাদেশ

image

পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে-প্রধানমন্ত্রী

image

জাতির পিতার চিন্তা ও উন্নয়নের সঙ্গে সংসদ সদস্যদের পরিচিত হতে হবে : স্পিকার

image

নারায়ণগঞ্জ-জয়দেবপুর রুটে ইলেকট্রিক ট্রেন চালু হচ্ছে : রেলপথমন্ত্রী

image

সংসদে শামিম কবিরসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব

image

জিয়া-এরশাদের শাসন আমল ছিল অবৈধ : প্রধানমন্ত্রী

image

নানা আয়োজনে শহীদ সোহরাওয়ার্দীর জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেছে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ

image