বিনম্র শ্রদ্ধায় শেষ বিদায় শামিম কবিরের

image

মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিসিবি একাডেমি মাঠে শামিম কবিরের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়-সংবাদ

আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাক্সক্ষীদের বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় শেষ বিদায় নিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের অন্যতম প্রাণপুরুষ ও জাতীয় দলের প্রথম অধিনায়ক শামিম কবির। ১ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকেলে নরসিংদীর ঘোড়াশালে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। এর আগে, সকালে রাজধানীর মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিসিবি একাডেমি মাঠে তার প্রথম জানাজা, গুলশান আজাদ মসজিদে দ্বিতীয় ও ঘোড়াশাল বাজার ঈদগাহ মাঠে তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

শামিম কবির সোমবার (২৯ জুলাই) সকালে রাজধানীর একটি হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামস্থ বিসিবি একাডেমি প্রাঙ্গণে শামিম কবিরের প্রথম জানাজায় অংশ নেন ক্রিকেটাঙ্গনের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসান, শফিকুল হক হীরা, গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, মিনহাজুল আবেদিন নান্নু, আকরাম খান ও নাইমুর রহমান দুর্জয়। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাইসউদ্দিন আহমেদ, তানভীর মাজহার তান্না ও সৈয়দ আশরাফুল হক, সাবেক ক্রিকেটার শাকিল কাশেম, সাবেক ক্রিকেটার ও সংগঠক জালাল আহমেদ চৌধুরীও আসেন দেশের প্রথম অধিনায়কের জানাজায়। সাকিব আল হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও জানাজায় উপস্থিত ছিলেন। এ সময় সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবির, আরদাশির কবির প্রমুখ ছিলেন। জানাজা শেষে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি), সংবাদ পরিবার, বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (বিওএ), ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম), বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিএসজেএ)সহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

গুলশান আজাদ মসজিদে বাদ জোহর শামিম কবিরের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ব্রাকের চেয়ারম্যান স্যার ফজলে হাসান আবেদ, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা আইয়ুব কাদেরী, ড. ম তামিম, সাবেক রাষ্ট্রদূত ও রাজনীতিক সমশের মবিন চৌধুরী, ঢাকা ক্লাবের প্রেসিডেন্ট খাইরুল মজিদ মাহমুদ (চন্দন), ঢাকা ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট শাহেদ রেজা, বিসিবি পরিচালক এনায়েত হোসেন সিরাজ, ফুটবলার আবদুল গাফ্ফার, ক্রিকেটার সৈয়দ আশরাফুল হকসহ আরও অনেক সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতারা জানাজায় উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রোকেয়া আফজাল রহমান প্রমুখ। এছাড়া সংবাদ সম্পাদক সংবাদের সম্পাদক আলতামাশ কবির, এমসিসিআই’র প্রেসিডেন্ট ব্যারিস্টার নিহাদ কবির, শামিম কবিরের বড় ছেলে আরিফ কবির, ছোট ছেলে ইউসুফ কবিরসহ মামিম কবিরের আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর শামিম কবিরের মরদেহ গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর ঘোড়াশালে নেয়া হয়। ঘোড়াশাল ঈদগাহ মাঠে নেয়া হলে সেখানে সর্বস্তরের মানুষ তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান। বাদ আছর জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এই কৃতি ক্রীড়াবিদ দীর্ঘদিন ক্যানসারসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, দ্ইু বড় বোনসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রহী রেখে যান। শামীম কবিরের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ১৯৬১ সালে। ওই বছরের নভেম্বরে করাচির (গ্রিন) বিরুদ্ধে তিনি পূর্ব পাকিস্তান দলের পক্ষে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট খেলেন। ১৯৬১ থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত অসংখ্য ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলেন তিনি। শামিম কবিরের অধিনায়কত্বে বাংলাদেশ প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলে এসিসির বিরুদ্ধে, ১৯৭৭ সালের ৭ জানুয়ারি। শামিম কবির ১৯৭৭ সালের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন।

শুধু গণমাধ্যমেই প্রকাশিত নারী-শিশু নিপীড়নের ঘটনায় সমাজ শঙ্কিত : প্রকৃত মাত্রা আরও ভয়াবহ

image

বিনামূল্যের পাঠ্যবই মুদ্রণে অনিয়ম ও প্রতারণা

image

৪৮ বছর পর সীমান্ত পিলারে পাকিস্তান মুছে বাংলাদেশ

image

পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে-প্রধানমন্ত্রী

image

জাতির পিতার চিন্তা ও উন্নয়নের সঙ্গে সংসদ সদস্যদের পরিচিত হতে হবে : স্পিকার

image

নারায়ণগঞ্জ-জয়দেবপুর রুটে ইলেকট্রিক ট্রেন চালু হচ্ছে : রেলপথমন্ত্রী

image

সংসদে শামিম কবিরসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব

image

জিয়া-এরশাদের শাসন আমল ছিল অবৈধ : প্রধানমন্ত্রী

image

নানা আয়োজনে শহীদ সোহরাওয়ার্দীর জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেছে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ

image