বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পেশাগত জ্ঞান অর্জনের কোন বিকল্প নেই : স্পিকার

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পেশাগত জ্ঞান অর্জনের কোন বিকল্প নেই। পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স (এনডিসি) ও আর্মড ফোর্সেস ওয়্যার কোর্সের (এএফডব্লিউসি) খুবই গুরুত্বপূর্ণ এ কথা উল্লেখ করে তিনি একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার পাশাপাশি দেশের সার্বিক উন্নয়নে এনডিসি কোর্সের সকল গ্র্যাজুয়েটদের কাজ করার আহবান জানান। ১০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাতে ঢাকা সেনানিবাসস্থ আর্মি মাল্টিপার কমপ্লেক্সে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ আয়োজিত ‘ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স-২০১৯ ও আর্মড ফোর্সেস ওয়ার কোর্স-২০১৯’ এর গ্র্যাজুয়েশন নৈশভোজে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহবান জানান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল শেখ মামুন খালেদ। খবর বাসসের

স্পিকার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন মানচিত্র, পতাকা, ভূখ- ও অনন্য সংবিধান পেয়েছে, যা লক্ষ প্রাণের আত্মত্যাগ ও রক্তের বিনিময়ে অর্জিত। তিনি জাতীয় উন্নয়ন ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সব পেশাজীবীর মধ্যে একটি সুসংহত ঐক্যমত্য ও একাগ্রতা থাকার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। স্পিকার সফলতার সঙ্গে কোর্স সম্পন্ন করার জন্য এনডিসি-২০১৯ ও এএফডব্লিউসি-২০১৯ কোর্সে অংশগ্রহণকারী সকলকে অভিনন্দন জানান। কোর্সে বিদেশী প্রশিক্ষণার্থীদের অংশগ্রহণ খুবই ইতিবাচক উল্লেখ করে তিনি বলেন, এতে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ তৈরী হয়। এসময় তিনি কোর্সে অংশগ্রহণকারী সকল গ্র্যাজুয়েটদের পেশাগত জীবনের সার্বিক সফলতা কামনা করেন। অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে সেনাবাহিনী,বিমানবাহিনী, নৌবাহিনী, ও সিভিল সার্ভিসের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন।

এদিকে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তিন বাহিনীর প্রধানরা এবং ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্সের ৩১জন বিদেশী প্রশিক্ষণার্থীসহ মোট ৮৫ জন, আর্মড ফোর্সেস ওয়ার কোর্সের ৩৭জন প্রশিক্ষণার্থী, ফ্যাকালটি মেম্বার ও স্টাফ অফিসাররা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।