মানুষ বাঁচাতে সব ব্যবস্থা : প্রয়োজনে শাটডাউন : ওবায়দুল কাদের

image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মানুষকে বাঁচাতে প্রয়োজন অনুযায়ী সব ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, অন্যান্য দেশের মতো ‘শাটডাউন’ প্রয়োজন হলে করা হবে, যেখানে যেখানে প্রয়োজন। কারণ এখানে সবার আগে মানুষকে বাঁচাতে হবে। বুধবার (১৪ মার্চ) সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজনৈতিক দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলার আহ্বান : ওবায়দুল কাদের রাজনৈতিক ও গোষ্ঠীচিন্তার ঊর্ধ্বে উঠে করোনা মোকাবিলায় সব রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, করোনা আমাদের অভিন্ন শত্রু, সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এর মোকাবিলা করতে হবে।

সভা-সমাবেশে যাব না : বিভিন্ন কর্মসূচিতে জমায়েত হচ্ছে; এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভা-সমাবেশে যাব না। যে কারণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষের উৎসব অনুষ্ঠান সীমিত করা হয়েছে। তিনি বলেন, এ আতঙ্ক সামনের দিনে যাতে আরও বাড়তে না পারে, সে ব্যাপারে যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গে মোকাবিলা করা হবে।

প্রয়োজনে আন্তঃজেলা পরিবহন বন্ধ : ভাইরাসটির ছড়ানো ঠেকাতে আন্তঃজেলা যাত্রী পরিবহন বন্ধ করা হবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, যাত্রীরা কমে যাওয়ায় এমনিতেই মালিক-শ্রমিকরা হতাশ। এগুলোতো ‘অটোমেটিক্যালি’ কমে যাবে, পরিস্থিতি কমিয়ে ফেলবে। তারপরও যদি প্রয়োজন হয়, আমরা ব্যবস্থা নেব।

ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে শক্তিশালী প্রস্তুতি : কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বিদেশফেরতদের অবাধে ঘুরে বেড়ানো ঠেকাতে কোন পদক্ষেপ নেয়া হবে কিনা এবং কভিড-১৯ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্য ও বিমান মন্ত্রণালয়ের কোন ব্যর্থতা দেখছেন কিনা- সাংবাদিকরা এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারিভাবে কঠোরভাবে নজর দেয়া হবে। তিনি বলেন, আমেরিকার মতো বিরাট শক্তি, আমি সিএনএন এ দেখলাম, তাদের বিভিন্ন এয়ারপোর্টে স্ক্রিনিং ব্যবস্থায় যথেষ্ঠ বিশৃঙ্খলা দেখা গিয়েছিল। আমাদের তো অভিজ্ঞতা নেই, আমরা ভুল থেকে শিক্ষা নিচ্ছি এবং এ ব্যাপারে আরও নিজেরা শক্তিশালী হয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। টেস্টিং কিট ও ফেইস মাস্কের সংকট মোকাবিলায় সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপের কথা না বললেও ‘চেষ্টার কোন ঘাটতি নেই’।