সরকারকে বিনামূল্যে ৫০০ ভেন্টিলেটর দিতে চায় টাইগার আইটি

image

করোনা দুর্যোগ মোকাবেলায় স্বল্প খরচে ভেন্টিলেটর প্রোটোটাইপ তৈরী করেছে ‘টাইগার আইটি বাংলাদেশ লিমিটেড’। যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেলেই ‘টাইগার আইটি’ সরকারকে বিনামূল্যে ৫শ’ কপি ভেন্টিলেটর প্রদান করবে।

এছাড়া দেশিয় কোন প্রতিষ্ঠান যদি এই ডিজাইন এবং স্পেসিফিকেশন অনুযায়ী ভেন্টিলেটার উৎপাদনে যেতে চায়, জাতীয় স্বার্থে টাইগার আইটি তা বিনামূল্যে সরবরাহ করবে।

অত্যন্ত কম খরচে ভেন্টিলেটরের প্রোটোটাইপ উৎপাদনকারী এই প্রতিষ্ঠানটির দাবি,সম্পূর্ণ দেশিয় কাঁচামাল দিয়েই পনের থেকে বিশ হাজার টাকা খরচে এই ভেন্টিলেটর বানানো সম্ভব।

বৈশ্বিক মহামারিতে রূপ নেওয়া করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে আক্রান্তদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিতে উন্নত দেশগুলো ভেন্টিলেটার সংকটে ভুগছে।

এই প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশে ভেন্টিলেটারের অপ্রতলতার বিষয়টি বিবেচনা করে টাইগার আইটি’র সফটওয়্যার অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট সাজ্জাদুল হাকিমের নেতৃত্বে একটি টিমের নিরলস প্রচেষ্টায় এই উদ্ভাবন বাস্তবে রূপ নিয়েছে। এখন যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নেওয়ার অপেক্ষায় এই ভেন্টিলেটর প্রোটোটাইপ।

খ্যাতনামা তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান টাইগার আইটি ফাউন্ডেশন ২০১৯ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি’র (এমআইটি) সঙ্গে অনেক প্রকল্পে একসঙ্গে কাজ করেছে। এরই ফলশ্রুতিতে এমআইটি’র কনসেপ্ট নিয়ে টাইগার আইটি উদ্ভাবন করল স্বল্প খরচের ভেন্টিলেটর।

নির্মাতারা বলছেন, এই ভেন্টিলেটর একটি মেকানিক্যাল নন-ইনভেসিভ ভেন্টিলেটর। এটি প্রধানত করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ এবং বিভিন্ন ধরণের শ্বাসকষ্টজনিত রোগের চিকিৎসায় বাজারের অন্যান্য ভেন্টিলেটরের মতই ব্যবহার করা যাবে।

টাইগার আইটি বাংলাদেশে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প ছাড়াও ভারত,নেপালসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে কাজ করছে।