২৪ ঘন্টায় আরও ৪৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১৭

image

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৩ হাজার ৫৫৭ জন। এছাড়া নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬১৭ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৬৯ হাজার ১১৫ জন শনাক্ত হলেন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৭৮২ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫৪ হাজার ৮৭১ জন। আজ বৃস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা.নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়,গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৯২টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ১৬২টি। এখন পর্যন্ত ১৩ লাখ ১৫ হাজার ৯০১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬১৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৮৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৩১ জন পুরুষ জন এবং ১৩ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ ২ হাজার ৮১৩ জন এবং নারী মৃত্যুবরণ করেছেন ৭৪৪ জন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, তাদের মধ্যে ৬০ ঊর্ধ্ব ২৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৭ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৬ জন, রাজশাহী বিভাগে ৩জন, খুলনা বিভাগে ৭জন, বরিশালে ৩জন, সিলেটে ৪জন এবং রংপুরে ২জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৪১ জন এবং ৩ জন বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৮১৩ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ৭০৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৮৩৫ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৪০ হাজার ৩১২ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৬০ হাজার ২০ জনকে। এতে আরও জানানো হয়, প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ২ হাজার ৪৩২ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ৪০৮ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৪ লাখ ৯ হাজার ১৬১ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৪ লাখ ৬২ হাজার ৬৩ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫২ হাজার ৯০২ জন।