২৮ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ-ভারত রুটে বিমান চলাচল শুরু

image

করোনার কারণে সাত মাস বন্ধ থাকার পর আগামী ২৮ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ-ভারত বিমান চলাচল শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক। তিনি বলেন, ২৮ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ-ভারতের রুটে বিমান চলাচল শুরু হবে। এটাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি। গতকাল শনিবার মুঠোফোনে তিনি সংবাদকে এ তথ্য জানান।

এর আগে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে বাংলাদেশ-ভারত বিমান চলাচল বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরে গত বৃহস্পতিবার বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) বিমান চলাচলের ঘোষণা দেয়া হয়। ভারত আগে থেকেই ফ্লাইট চালুর জন্য বাংলাদেশকে এয়ার বাবল প্রস্তাব করলে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ২৮ অক্টোবর তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

বুধবার আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। এয়ার বাবল চুক্তির অধীনে দু’দেশের মধ্যে সপ্তাহে ৫৬টি ফ্লাইট চলবে। সপ্তাহে পাঁচ হাজার বাংলাদেশি ভারত যাওয়ার সুযোগ পাবে। সপ্তাহে বাংলাদেশ থেকে ২৮টি ফ্লাইট ভারত যাবে। সমান সংখ্যক ফ্লাইট ভারত থেকে বাংলাদেশে আসবে। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ও নভোএয়ার বাংলাদেশ থেকে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। ভারতের পক্ষ থেকে এয়ার ইন্ডিয়া, ইন্ডিগো, স্পাইসজেট, ভিস্তারা ও গোএয়ার বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনা করবে। বিমান ঢাকা-দিল্লি ও ঢাকা-কলকাতা, ইউএস এয়ারলাইন্স ঢাকা-চেন্নাই, ঢাকা-কলকাতা এবং নভোএয়ার ঢাকা-কলকাতা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে বলে বিমান সূত্র জানায়।