আইনি লড়াই বা রাষ্ট্রপতির ক্ষমা ছাড়া খালেদার মুক্তির বিকল্প পথ নেই : হানিফ

image

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াকে আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে। অথবা রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করতে হবে। এর বিকল্প কোন পথ নেই। ১৭ জুলাই বুধবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কারাবন্দী দিবস’ উপলক্ষে স্বপ্ন ফাউন্ডেশন আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সহ-সভাপতি নুরুল আলম রুহুল, জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ওমর ফারুক, বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাৎ করে দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে আছেন। তার পুত্র তারেক রহমান দুর্নীতি এবং সন্ত্রাসী মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে লন্ডনে ফেরারি জীবনযাপন করছেন। হানিফ বলেন, আন্দোলন ও সংগ্রামের মধ্যে আওয়ামী লীগের জন্ম হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর গড়া এ দলকে বিএনপির আন্দোলনের হুমকি দেয়া হাস্যকর ছাড়া আর কিছুই নয়। এ সময় হানিফ আরও বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সঙ্গে জড়িতদের তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া উচিত। যাতে দেশে আর কখনো এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন ভালো আছে। দলের তৃণমূলও শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। ২০০৭ সালের ওয়ান ইলেভেনের সময় দলে যে বিভক্তি ছিল, এখন সে সংকট নেই। আওয়ামী লীগ এক্যবদ্ধ থাকলে কোন ধরনের ষড়যন্ত্রই সফল হতে পারবে না।