শ্রমিক লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি মন্টু ও সম্পাদক খসরু

image

জাতীয় শ্রমিক লীগের নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন কে এম আযম খসরু। এছাড়া কার্যকরী সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন মোল্লা আবুল কালাম আজাদ। ৯ নভেম্বর শনিবার বিকেলে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশনে নতুন নেতাদের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

নবনির্বাচতি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু শ্রমিক লীগের গত কমিটিসহ একাধিকবার কার্যকরী সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। এছাড়া, তিনি শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং পাবনা জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ছিলেন। দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে ট্রেড ইউনিয়নের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ফজলুল হক মন্টু ১৯৬৯-৭০ সালে পাবলা জেলা ছাত্রলীগের দায়িত্বে ছিলেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে তিনি পাবনা জেলা মুজিব বাহিনীর প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। নতুন সাধারণ সম্পাদক কে এম আযম খসরু গত কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছিলেন। এর আগে তিনি সোনালী ব্যাংক সিবিএ’র সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। নতুন কার্যকরী সভাপতির দায়িত্ব পাওয়া মোল্লা আবুল কালাম আজাদ গত কমিটির সহসভাপতি ছিলেন।

এর আগে সকালে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে শ্রমিক লীগের ১৩তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটটিউশনে বসে কাউন্সিল অধিবেশন। কাউন্সিলে সভাপতি পদে ৭ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ১৩ জনের নাম প্রস্তাব করা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নতুন নেতাদের নাম ঘোষণার সময় বলেন, সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে যাদের নাম এসেছে তাদেরকে নিয়ে আমরা সমঝোতায় বসেছিলাম। সমঝোতায় কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত না আসায় সবাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার উপর দায়িত্ব দিয়েছেন। নেত্রীয় শ্রমিক লীগের তিনজনের নাম বলেছেন। আশা করি, আপনারা এই কমিটি নিয়ে শ্রমিক লীগ সুসংগঠিত করবেন।

নবনির্বাচিত সভাপতি মোস্তফা মহসিন মন্টু তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে শ্রমিক লীগের সভাপতি পদে দায়িত্ব দিয়েছেন, আমি সৎ এবং নিষ্ঠার সাথে আমার দায়িত্ব পালন করব। নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক আজম খসরু বলেন, সারাদেশে শ্রমিক লীগ সুসংগঠিত করে রাখবো আমরা কাজ করে যাব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বাস অক্ষুন্ন রাখব।

এসময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহউদ্দিন নাছিম, সহ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ। উল্লেখ্য, ১৯৬৯ সালের ১২ অক্টোবর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের সর্ববৃহৎ শ্রমিক সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগ প্রতিষ্ঠা করেন।