ক্রীড়াবিদ ভাতা নিয়ে ভাবছে সরকার

image

‘আমাদের দেশে অনেক ভাতা থাকলেও ক্রীড়াবিদদের জন্য সরকারিভাবে কোন ভাতার ব্যবস্থা নেই। তাই আমরা খেলোয়াড়, সংগঠক ও খেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের জন্য মাসিক ভাতা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এছাড়া শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কারের প্রবর্তন করব’ মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) তায়কোয়ান্ডোকাদের সংবর্ধনাকালে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এই মন্তব্য করেন। এসএ গেমসে পদকজয়ীদের সংবর্ধনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে পদকজয়ীদের সংবর্ধনা দেবেন। কবে নাগাদ দেবেন তা আগামীকাল (আজ) জানা যাবে।’ বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস নিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ গেমসে ৩১টি ডিসিপ্লিন খেলবে। এর মধ্যে ফুটবল, হকি ও অ্যাথলেটিকস বাদে বাকি ডিসিপ্লিনগুলোতে এ বছর আর জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ হবে না। কারণ সেই অর্থ আমরা গেমসের মাধ্যমে তাদেরকে দেব। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) বলছে প্রত্যেক জেলাকে আট লাখ টাকা করে তারা দিয়ে দিয়েছে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য। তাই আমরা গেমসে তাদের জন্য কোন বাজেট রাখিনি।’ বাফুফেকে ২০ কোটি টাকা বরাদ্দের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এই অর্থ বাফুফে কিভাবে খরচ করবে তা দেখার জন্য আমরা একটি মনিটরিং কমিটি করে দেব। তাছাড়া প্রত্যেক জেলায় অর্থ খরচের জন্য জেলা প্রশাসকদের মাধ্যমে কমিটিও থাকবে।’ পাকিস্তান সফর নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) মধ্যকার দূরত্ব নিয়ে রাসেল বলেন, ‘আলোচনা করে সব সমস্যার সমাধান হয়।

আমাদের ক্রিকেটাররা দেশের সম্পদ। তাদেরকে রক্ষা করে কিভাবে সমাধান করা যায়, তা দেখব। ২০ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় আসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মানু শনি ঢাকায় এসে আমাদের সঙ্গে সভা করবেন। আগামী বছর থেকে বাংলাদেশে বিভিন্ন ধরনের ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করবে আইসিসি।

সে বিষয়েই আলোচনা হবে।’ বর্তমান সরকারের এক বছর পূর্তীতে বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরে জাহিদ আহসান বলেন, ‘আমরা গত এক বছরের মধ্যে এসএ গেমসে সবচেয়ে বেশি পদক জিতেছি। ক্রিকেটে বাংলাদেশের বাইরে আন্তর্জাতিক টুর্নামন্টে জিতেছি। আরচারিতে ১০টি স্বর্ণ পেয়েছি। রোমান সানা সরাসরি অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। দেশজুড়ে ১৪০টির মতো মিনি স্টেডিয়াম তৈরি করেছি। প্রতিবন্ধীদের জন্য স্টেডিয়াম নির্মাণ করার সিদ্ধান্তও নিয়েছি। অলিম্পিক ভিলেজ করব সে ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত হয়েছে। গেল এক বছরের মধ্যে বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় করেছি। বঙ্গবন্ধু অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপ করেছি। এবার বঙ্গবন্ধু আন্তঃকলেজ টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হবে। এর পাশাপাশি দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আর হাসানের নিষেধাজ্ঞাও আমাদের ব্যথিত করেছে।’