জয় দিয়ে ইউরো অভিযান শুরু স্পেনের

image

জয় দিয়েই ইউরো ২০২০ এর বাছাই পর্ব শুরু করেছে স্পেন। যদিও তাদের প্রথম ম্যাচের পারফরমেন্স খুশি করতে পারেনি সমর্থকদের। নিজেদের মাঠে শনিবার ১-২ গোলে নরওয়েকে পরাজিত করেছে লুইস এনরিকের স্পেন। স্পেনের অধিনায়ক সার্জিও র‌্যামোস পেনাল্টি থেকে করেন দলের জয়সূচক গোলটি। স্পেনের শুরুটা হয়েছিল বেশ ভালো। ভ্যালেন্সিয়ার মেস্টালা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে ১৬ মিনিটেই এগিয়ে যায় স্পেন। জর্দি অ্যালবার ক্রস থেকে রড্রিগো মরেনো ভলিতে গোলটি করেন। এরপরও তারা প্রাধান্য বজায় রাখে, যদিও গোল করার মতো সুস্পষ্ট সুযোগ তারা তৈরি করতে পারছিল না। নরওয়ে খুব বেশি আক্রমণ করতে পারেনি। তবে তারা ৬৫ মিনিটে সমতা ফেরাতে সক্ষম হয়। গোলটি পেনাল্টি থেকে করেন স্ট্রাইকার জসুয়া কিং। বিয়র্ন জনসেনকে পেনাল্টি বক্সের মধ্যে ইনিগো মার্টিনেজ ফাউল করলে পেনাল্টিটি পায় নরওয়ে। স্পেন এর ছয় মিনিট পর পেনাল্টি পায়। নরওয়ের গোলরক্ষক রুনে জারস্টিন বক্সের মধ্যে অ্যালভারো মোরাতাকে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় স্পেন। অধিনায়ক র‌্যামোস পেনাল্টি থেকে গোল করেন। চলতি মৌসুমে এ নিয়ে ৫মবার পেনাল্টি থেকে গোল করলেন র‌্যামোস।

ইউইএফএ ন্যাশন্স লীগ থেকে বিস্ময়করভাবে বিদায় নেয়ায় স্পেনের খেলোয়াড়দের কাছে জয় দিয়ে বাছাই পর্ব শুরু করা ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তার আগে বিশ^কাপেও তারা হতাশ করেছিল। কোচ লুইস এনরিকে এ ম্যাচের জন্য বলতে গেলে একটি পরীক্ষামূলক দল গঠন করেন। পরের ম্যাচে মাল্টার বিপক্ষেও একই স্কোয়াডই থাকছে। এ ম্যাচে খেলার সুযোগ পান জেসাস নাভাস। ২০১৪ সালের পর এই প্রথম তিনি জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামলেন।

নিজেদের মাঠ, নতুন লক্ষ্য, সব মিলিয়ে স্পেনের যাত্রাটা ভালো করার দরকার ছিল। তারা শুরুটা করেছিল প্রত্যাশিতভাবে দাপটের সঙ্গেই। গোল পেতেও খুব বেশি দেরি করতে হয়নি মার্কো অ্যাসেনসিওর সঙ্গে দেয়া নেয়া করে অ্যালবা গোলমুখে ক্রস করলে সেটিতে পা লাগিয়ে দলকে এগিয়ে দেন রড্রিগো। এরপরও তাদের দাপট থাকলেও গোল করতে পারছিল না। বিশেষ করে মোরাতা বেশ কয়েকবার সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন। এছাড়া নরওয়ের গোলরক্ষক জারস্টিনও বাঁচিয়েছেন কয়েকটি প্রচেষ্টা।

মোরাতা সুযোগ নষ্ট করার পর পেনাল্টি আদায় করে ভুল শুধরে দিতে সক্ষম হন। তিনি পেনাল্টি আদায় করতে না পারলে ফল কি হতো বলা মুশকিল। বিশেষ করে নরওয়ের রক্ষণভাগ যেভাবে দৃঢ়তা দেখাচ্ছিল তা স্পেন ভাবতে পারেনি। তার ওপর তারা গোল খায় খেলার ধারার বিপরীতে। এর পর খেলার সব উত্তেজনা শেষ করে দেয়ার সুযোগ এসেছিল অ্যাসেনসিওর সামনে। কিন্তু তিনি ক্রসবারের উপর দিয়ে মেরে তা নষ্ট করেন। শেষ দিকে নরওয়ে বেশ চেপে ধরে স্পেনকে। এ সময় তারা গোল পরিশোধের সর্বাত্মক চেষ্টা

চালায়। ফলে স্বাগতিক সমর্থকদের বেশ উদ্বেগের মধ্যে কাটাতে

হয়। ওয়েবসাইট।