প্রাণ ফিরে পেল পল্টন ময়দান

image

ছুটির দিন এরপরও পল্টন ময়দানে উৎসুক জনতা। কেউ হাতে তালি দিচ্ছেন, কেউ বলছেন গুড শট। অনেক দিন পর পল্টন ময়দান ফিরে পেল প্রাণ সঞ্চারতা। করোনার আগে পল্টন ময়দানে সারাদিনই খেলাধুলায় লেগে থাকতো। করোনা এসে একেবারে সব স্থবিরতা। মাঝে বিচ্ছিন্নভাবে খেলাধুলা শুরু হলেও একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ ফিরিয়ে আনলে আগের পল্টন ময়দানকে। শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে এক প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করে ফুটবল সংশ্লিষ্টরা। ঢাকায় বিভিন্ন ক্লাবে খেলা বিদেশি ফুটবলারদের নিয়ে ফরেন একাদশ ও স্থানীয় ফুটবলারদের নিয়ে ঢাকা একাদশ গড়া হয়। ত্রিশ মিনিট করে দুই অর্ধেক ম্যাচে ফরেন একাদশ ২-১ গোলে ঢাকা একাদশকে হারায়। যথেষ্ট স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করেই অনুষ্ঠিত হয় ম্যাচটি।

ঘরোয়া ফুটবলে পরিচিত নাম বাইবেক। টিম বিজেএমসিসহ অনেক ক্লাবে খেলেছেন। কালকের ম্যাচে ভিন্ন এক মজা পেয়েছেন বাইবেক, ‘অনেক দিন পর যেন মুক্ত হলাম। এই ম্যাচটি অনেকটা জেল থেকে মুক্তি পাওয়ার মতো। এমন উদ্যোগটি অসাধারণ।’ এই ম্যাচের অন্যতম উদ্যোক্তা ঘরোয়া ফুটবলের পরিচিত কোচ কামাল বাবু। ম্যাচ আয়োজনের কারণ সম্পর্কে বলেন, ‘সবাই প্রতিষ্ঠিত ফুটবলার নিয়েভাবে। আমি চিন্তা করলাম যারা যুব দলগুলোতে রয়েছে। তাদের নিয়ে কিছু করা দরকার। সেই ভাবনা থেকেই আমার এই উদ্যোগ।’ ঢাকা একাদশে অধিকাংশ ফুটবলারই সাইফের যুব দলের। ম্যাচ খেলে তারাও তৃপ্ত, ‘কত যে ভালো লাগছে সেটা বলে বোঝানো যাবে না। হার-জিত কোন বিষয় নয়। মাঠে নামতে পারছি এটাই অনেক।’ এই ম্যাচের অন্যতম অতিথি ছিলেন রহমতগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক ও বাফুফে নব নির্বাচিত সদস্য ইমতিয়াজ হামিদ সবুজ। তার প্রতিক্রিয়া, ‘এ রকম আয়োজন অত্যন্ত প্রশংসনীয়। অনেক তরুণ প্রতিভাবান ফুটবলার দলবদলের আগে নিজেদের কিছুটা হলেও দেখানোর সুযোগ পেল।’ পল্টন ময়দানে অনুষ্ঠিত ম্যাচের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক দিলু খন্দকার, বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, রোলার স্কেটিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসিফুল হাসান, বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক আবু হাসান চৌধুরি প্রিন্স।