সঞ্চালক গাফফার

image

ফুটবলার ও সংগঠক হিসেবে পরিচিতি আবদুল গাফফারের। ক্রীড়াবিদ হিসেবে পেয়েছেন জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারও। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পড়াবস্থায় ছাত্র রাজনীতি করেছেন। এখনও সক্রিয় রয়েছেন রাজনীতিতে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। ছেলের বিবাহ কাজ সম্পন্ন করতে আমেরিকায় গিয়েছিলেন গাফফার। পারিবারিক দায়িত্ব পালন শেষে বাংলাদেশে ফিরতে চাইলেও করোনা কারণে আটকে গেছেন। করোনা তাকে আমেরিকাতে আটকে রাখলেও বাংলাদেশের ফুটবল থেকে দূরে রাখতে পারেননি। ফ্লোরিডা বাংলা টিভিতে প্রতি সপ্তাহে একটি ফুটবল বিষয়ক অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করছেন। ইতোমধ্যে কয়েকটি পর্ব করেছেন। সাবেক জাতীয় ফুটবলার আসলাম, কায়সার হামিদ, বাদল রায় সহ অনেক কৃতি ক্রীড়াবিদ ও সংগঠক গাফফারের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে সংযুক্ত হয়েছে। আমেরিকার বাংলাদেশি প্রবাসী ছাড়াও বাংলাদেশে ক্রীড়াঙ্গনে অনুষ্ঠানটি জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার রাতে করোনা পরিস্থিতি ও ফুটবল নিয়ে সামগ্রিক আলোচনায় যুক্ত করেছিলেন দুই বিশিষ্ট ক্রীড়া সাংবাদিক মোজাম্মেল হক চঞ্চল ও রায়হান মাহমুদকে। বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি ও চলমান ফুটবল নিয়ে তারা মতামত দেন। সংবাদের ক্রীড়া প্রতিবেদক আরাফাত জোবায়েরের এই আলোচনায় সংযুক্ত হওয়ার কথা থাকলেও ইন্টারনেট জটিলতায় তিনি সংযুক্ত হতে পারেননি।

আবদুল গাফফার বলেন, ‘আমেরিকায় থাকলেও দেশের সবার জন্য মন কাদছে এই পরিস্থিতিতে। বিশেষ করে ফুটবলসংশ্লিষ্টদের জন্য। এই অবস্থায় ফ্লোরিডা বাংলা টিভি ফুটবল সম্পর্কিত অনুষ্টান সঞ্চালনার প্রস্তাব দিল টিটন,মনোয়ার আরো অনেকে। কানাডা থেকে মামুন জোয়ারদারও যথেষ্ট অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। ফ্লোরিডা বাংলা টিভি খুব শীঘ্রই বাংলাদেশ ও আমেরিকায় একটি বিশেষ অবস্থান করে নিবে।’