সনের গোলে বার্নলেকে হারিয়েছে টটেনহ্যাম

image

টটেনহ্যামের কোরিয়ান তারকা সন হিউং মিন ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে তার দুরন্ত ফর্ম অব্যাহত রেখেছেন। সোমবার তিনি গোল করে দলকে বার্নলের বিপক্ষে জয় এনে দেন। এ ম্যাচে জয়ী হয়ে হোসে মরিনহোর টটেনহ্যাম পয়েন্ট তালিকার ৫ম স্থানে উন্নীত হয়েছে। চলতি মৌসুমে নিয়মিত গোল করছেন সন। সোমবারের গোল নিয়ে চলতি মৌসুমে তার গোল সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে আটটিতে। এরিক লামেলার কর্নার কিক থেকে হ্যারি কেইন ফ্লিক করে বল দিলে সন সেটিকে গোলে পরিনত করেন। লীগে টটেনহ্যামের এটা ছিল ছয় ম্যাচের তৃতীয় জয়। এ গোলের ঠিক কয়েক মিনিট আগে কেন দলকে গোল খাওয়ার হাত থেকে বাচিয়ে দেন। জেমস টারকোয়াস্কির হেড জালে যাওয়ার পথে গোল লাইন থেকে সেটি প্রতিহত করেন কেইন।

সিন ডাইকের বার্নলে চলতি মৌসুমে তেমন ভাল করতে পারছে না। লীগে প্রথম ৫ ম্যাচ থেকে তারা মাত্র একটি পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পেরেছে। এ ম্যাচে অবশ্য তারা বেশ ভাল খেলেছে এবং এগিয়ে যাওয়ার সুযোগও পেয়েছে। অ্যাশলে বার্নের ২০ মিনিটের প্রচেষ্টা বাতিল হয় অফসাইডের কারণে। এর পর অ্যাশলে ওয়েস্টউডের শট রুখে দেন গোলরক্ষক হুগো লরিস। এ গোলের মাধ্যমে সন এখন প্রিমিয়ার লীগে গোল দাতাদের শীর্ষে উঠেছেন। অপর দিকে কেইন সবচেয়ে বেশী গোলের সুযোগ সৃষ্টিকারী। কোচ মরিনহো তারকা খেলোয়াড় কেইনকে কিছুটা নিচের দিকে অবস্থান নিয়ে গোলের সুযোগ সৃষ্টি করতেই নির্দেশ দিয়েছেন। গোল করার ক্ষেত্রে সন এবং লুকাস মউরা খেলছেন স্ট্রাইকার হিসেবে। এতে কাজও হচ্ছে। টটেনহ্যাম নিয়মিত গোল করছে প্রতিটি ম্যাচে। ছয় ম্যাচে টটেনহ্যাম গোল করেছে ১৬টি। নিজের নতুন দায়িত্ব সম্পর্কে কেইন বলেন, ‘এটা দারুন ব্যাপার। আমাদের দরকার প্রত্যেকের গোল করা এবং গোলে সাহায্য করা। তাহলেই সাফল্য আসবে। আমার এবং সনের মধ্যে বোঝা পড়াটা ভাল। তাই আমরা নিয়মিত গোল পাচ্ছি, আশা করছি এ ধারা অব্যাহত থাকবে। আজ যে আমি খুব অসাধারণ কিছু করেছি তা নয়, এটা সানির কাছে গেছে এবং সে গোল করেছে। বার্নেলের বিপক্ষে তাদের মাঠে জিততে পারাটা দারুন ব্যাপার।’ কেইন মনে করেন বার্নলের বিপক্ষে তাদের মাঠে জেতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। গত দুই মৌসুমে এ ভেন্যুতে জিততে পারেনি টটেনহ্যাম। তিনি বলেন, ‘আজকের ম্যাচটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখানে এসে লেখা মোটেও সহজ কাজ নয়। আমরা আগেই জানতাম এখানে খেলাটা হবে খুবই কঠিন। মৌসুম শেষে একটি ভাল অবস্থানে যেতে হলে এখান থেকে তিন পয়েন্ট পাওয়া খুবই জরুরী ছিল। দলের সবাই দারুন লড়াই করেছে।’

বার্নলে জিততে না পারলেও এ ম্যাচকে বেশ ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন কোচ ডাইক। তিনি বলেন, ‘দল বেশ ভাল খেলেছে। খেলটা ছিল খুবই কঠিন। ছেলেরা আত্মবিশ^াস নিয়ে খেলেছে। গত দুই ম্যাচে খেলোয়াড়রা দেখিয়েছে তাদের সামর্থ আছে। আমরা আজ একটি সহজ গোল খেয়ে হেরেছি। আমরা নিজেরা আজ দারুন কিছু আক্রমণ গড়েছি। আমাদের জন্য মৌসুমটা শুরু হয়েছে খুবই কঠিনভাবে। আমার মনে হয় শেষ দুটি ম্যাচে আমরা ভাল কিছুর আভাস পেয়েছি। আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।’ ওয়েবসাইট।